কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে হলে জিততেই হতো আর্জেন্টিনাকে। কিন্তু অলিম্পিক ফুটবলে আর্জেন্টিনা জিততে পারেনি, কোনোরকমে ১-১ গোলে ড্র করেছে হন্ডুরাসের সঙ্গে। তাই একরাশ হতাশা নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হলো বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় দলকে।


কোয়ার্টার ফাইনালে উঠতে হলে জিততেই হতো আর্জেন্টিনাকে। কিন্তু অলিম্পিক ফুটবলে আর্জেন্টিনা জিততে পারেনি, কোনোরকমে ১-১ গোলে ড্র করেছে হন্ডুরাসের সঙ্গে। তাই একরাশ হতাশা নিয়ে গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নিতে হলো বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় দলকে।


বুধবার রাতে ‘ডি’ গ্রুপের অন্য ম্যাচের ফলও ১-১। তবে আলজেরিয়ার সঙ্গে ড্র করলেও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হিসেবেই কোয়ার্টার ফাইনালে উঠেছে পর্তুগাল। শেষ আটে পর্তুগিজদের সঙ্গী আর্জেন্টিনাকে রুখে দেওয়া হন্ডুরাস। 


‘ডি’ গ্রুপের সব খেলা শেষে পর্তুগালের সাত পয়েন্ট। আর্জেন্টিনা ও হন্ডুরাস দুই দলেরই সংগ্রহ চার পয়েন্ট করে। তবে গোল গড়ে এগিয়ে আছে হন্ডুরাস। উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকার সংযোগস্থলের ছোট্ট দেশটি পাঁচটি গোল করার পাশাপাশি পাঁচটি গোল খেয়েছে। অন্যদিকে তিনটি গোল করা আর্জেন্টিনা খেয়েছে চারটি গোল। 


ব্রাসিলিয়ার ন্যাশনাল স্টেডিয়ামে জমজমাট লড়াই হয়েছে আর্জেন্টিনা আর হন্ডুরাসের মধ্যে। তিনটি পেনাল্টি হয়েছে এই ম্যাচে, যার মধ্যে দুটোই মিস! বিরতির ঠিক আগে হন্ডুরাসের অধিনায়ক ব্রায়ান অ্যাকোস্তার পেনাল্টি ঠেকিয়ে দিয়েছেন আর্জেন্টাইন গোলরক্ষক গেরোনিমো রুলি। ৫৫ মিনিটে আর্জেন্টিনার জন্য হতাশা। এবার অ্যাঞ্জেল করেয়ার পেনাল্টি শট ফিরে এসেছে পোস্টে লেগে।


২০ মিনিট পর অ্যান্তনি লোজানো অবশ্য কোনো ভুল করেননি। পেনাল্টি থেকেই হন্ডুরাসকে এগিয়ে দিয়েছেন তিনি। কোয়ার্টার ফাইনালে ওঠার জন্য দুবারের অলিম্পিক চ্যাম্পিয়নদের তখন দুই গোল প্রয়োজন। ইনজুরি সময়ে মরিসিও মার্তিনেজ সমতা নিয়ে এলেও অলিম্পিক থেকে বিদায় ঠেকাতে পারেনি আর্জেন্টিনা।

Post A Comment: