দেড় মাসেরও বেশি সময় সাকিব আল হাসান ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজে। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে জ্যামাইকা তালাওয়াসের হয়ে লড়েছেন তিনি। দলকে চ্যাম্পিয়ন করেই দেশে ফিরেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। আজ শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ বিমানের এক যাত্রায় ঢাকায় পৌঁছেছেন ‘চ্যাম্পিয়ন’ সাকিব।



দেড় মাসেরও বেশি সময় সাকিব আল হাসান ছিলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজে। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে জ্যামাইকা তালাওয়াসের হয়ে লড়েছেন তিনি। দলকে চ্যাম্পিয়ন করেই দেশে ফিরেছেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার। আজ শুক্রবার সকালে বাংলাদেশ বিমানের এক যাত্রায় ঢাকায় পৌঁছেছেন ‘চ্যাম্পিয়ন’ সাকিব।


আইপিএলের নবম আসরে খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি সাকিব। দেশে ফিরে জানিয়েছিলেন, নিজের পারফরম্যান্স নিয়ে সন্তুষ্ট ছিলেন না তিনি। ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগে তা পুষিয়ে দেয়া কথা বলেছিলেন। কথা দিয়ে কথা রেখেছেন বাংলাদেশি সুপারস্টার। এবার জ্যামাইকাকে চ্যাম্পিয়ন করেই দেশে ফিরলেন। শিরোপা জয়ে ব্যাটে-বলে অনন্য অবদান রেখেছেন তিনি।
বিশেষ করে টুর্নামেন্টে শেষ দিকে জ্যামাইকা যখন খানিকটা কোণঠাসা, ঠিক তখনই জ্বলে উঠেছেন সাকিব। দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ও ফাইনালে আন্দ্রে রাসেলের সঙ্গে দুর্দান্ত পারফর্ম করেছেন তিনি। জ্যামাইকার হয়ে ১৩ ম্যাচ খেলে ১০ ইনিংসে ব্যাট করার সুযোগ পান সাকিব। ২২.৮৫ গড়ে করেছেন ১৬০ রান। যার মধ্যে রয়েছে একটি অর্ধশতকও। খেলেছেন ব্যক্তিগত সর্বোচ্চ ৫৪* রানের ইনিংস।


বল হাতে আরো উজ্জ্বল ছিলেন সাকিব। প্রতিপক্ষ দলের বাঘা বাঘা তারকা ব্যাসম্যানদের পরাস্ত করেছেন তিনি। শিকার করেছেন ১২ উইকেট। ইকোনোমি রেট ৬.৯৬। টি-টোয়েন্টিতে যা ঈর্ষণীয়ই বটে। আপাতত কয়েকদিন বিশ্রামে থাকবেন সাকিব। এরপর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজকে সামনে রেখে ২০ আগস্ট মাশরাফিদের সঙ্গে যোগ দেয়ার কথা রয়েছে তার।


Post A Comment: