আন্তর্জাতিক বাজারে দর বৃদ্ধির কারণে আট দিনের মাথায় দেশের বাজারেও সোনার দাম আবার বাড়ছে। গত সপ্তাহের মতো এবারও সোনার দাম ভরিতে সর্বোচ্চ ১ হাজার ২২৫ টাকা বৃদ্ধি পাচ্ছে। নতুন দর আজ রোববার থেকে কার্যকর হচ্ছে।

বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি দাম বৃদ্ধির বিষয়ে গত শুক্রবার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে বিষয়টি গতকাল শনিবার গণমাধ্যমকে জানায় সমিতি। সর্বশেষ ১৮ জুন প্রতি ভরি সোনায় সর্বোচ্চ ১ হাজার ২২৫ টাকা বৃদ্ধি করেছিল জুয়েলার্স সমিতি।

নতুন দর অনুযায়ী, প্রতি ভরি (১১ দশমিক ৬৬৪ গ্রাম) ভালো মানের, অর্থাৎ ২২ ক্যারেট সোনা ৪৮ হাজার ৩৪৮ টাকা, ২১ ক্যারেট ৪৬ হাজার ১৯০ টাকা এবং ১৮ ক্যারেটের দাম হবে ৩৯ হাজার ৬০০ টাকা। আর সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরি দাঁড়াবে ২৭ হাজার ৫২৭ টাকা।

জানতে চাইলে জুয়েলার্স সমিতির সাধারণ সম্পাদক এনামুল হক খান প্রথম আলোকে বলেন, ‘আন্তর্জাতিক বাজারে সোনার দর বৃদ্ধির যে প্রবণতা তাতে মনে হচ্ছে, শিগগিরই প্রতি আউন্স সোনার দাম ১ হাজার ৪০০ ডলারে চলে যাবে। সে অনুপাতে দেশের বাজারে দাম বাড়াতে হবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘সোনার দাম বৃদ্ধি জুয়েলারি ব্যবসায়ীদের জন্য দুঃসংবাদ। এখন সোনার অলংকার বিক্রি কমে যাবে।’

আন্তর্জাতিক বাজারে গতকাল প্রতি আউন্স (২ দশমিক ৪৩ ভরি) সোনার দাম ছিল ১ হাজার ৩২০ ডলার। চলতি বছরের মধ্যে বিশ্ববাজারে এটিই সোনার সর্বোচ্চ দাম। গত ১ জানুয়ারি প্রতি আউন্স সোনার দাম ছিল ১ হাজার ৬০ ডলার। সেই হিসাবে গত ৫ মাস ২৪ দিনে প্রতি আউন্স সোনার দাম ২৪ দশমিক ৫২ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে। একইভাবে দেশের বাজারেও সোনার দাম বেড়েছে। জানুয়ারির শুরুতে ২২ ক্যারেট সোনার দাম ছিল ৪১ হাজার ২৯০ টাকা। অর্থাৎ জানুয়ারির চেয়ে জুনে দেশে সোনার দাম ভরিতে বেড়েছে ৭ হাজার ৫৮ টাকা।

সারা দেশের জুয়েলার্সে গতকাল শনিবার পর্যন্ত প্রতি ভরি ২২ ক্যারেট সোনা ৪৭ হাজার ১২৩ টাকা, ২১ ক্যারেট ৪৫ হাজার ২৪ টাকা, ১৮ ক্যারেট ৩৮ হাজার ৬০৮ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরি ২৬ হাজার ৮২৭ টাকায় বিক্রি হয়। দাম বৃদ্ধির কারণে ২২ ক্যারেট সোনার ভরিতে ১ হাজার ২২৫ টাকা, ২১ ক্যারেটে ১ হাজার ১৬৬ টাকা, ১৮ ক্যারেটে ৯৯২ টাকা এবং সনাতন পদ্ধতির সোনার ভরিতে ৭০০ টাকা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

অন্যদিকে রুপার ভরি ১ হাজার ১৬৭ টাকা থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ১ হাজার ২২৫ টাকা হবে। এ ক্ষেত্রে দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে ভরিতে ৫৮ টাকা।

Post A Comment: