বিটিআরসির সচিব ও মুখপাত্র সরওয়ার আলম ভিন্ন খবরকে বলেন, সময় বাড়ানোর পরও যাঁরা সিম পুনর্নিবন্ধন করেননি, তাঁদের বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিজের পরিচয় নিশ্চিত করেই সিম চালু করতে হবে। বিটিআরসির নিয়ম অনুযায়ী, একটি সিম একটানা ১৮ মাস বা ৫৪০ দিন বন্ধ থাকলে সেটির মালিকানা গ্রাহকের থাকে না। এর মধ্যে ১৫ মাস বা ৪৫০ দিন পার হলে মুঠোফোন অপারেটররা একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে নিষ্ক্রিয় সংযোগটি পরের ৯০ দিনের মধ্যে চালু করার জন্য গ্রাহককে অনুরোধ করে। এভাবে মোট ১৮ মাস সময়ে সিমটি চালু করা না হলে সেটির মালিকানা বর্তমান ব্যবহাকারকারীর থাকে না। আজ থেকে বন্ধ হওয়া সংযোগের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য হবে।
বন্ধ সিম টাকা দিয়ে নিবন্ধন করা যাবে

বিটিআরসির সচিব ও মুখপাত্র সরওয়ার আলম ভিন্ন খবরকে বলেন, সময় বাড়ানোর পরও যাঁরা সিম পুনর্নিবন্ধন করেননি, তাঁদের বায়োমেট্রিক পদ্ধতিতে নিজের পরিচয় নিশ্চিত করেই সিম চালু করতে হবে।


বিটিআরসির নিয়ম অনুযায়ী, একটি সিম একটানা ১৮ মাস বা ৫৪০ দিন বন্ধ থাকলে সেটির মালিকানা গ্রাহকের থাকে না। এর মধ্যে ১৫ মাস বা ৪৫০ দিন পার হলে মুঠোফোন অপারেটররা একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে নিষ্ক্রিয় সংযোগটি পরের ৯০ দিনের মধ্যে চালু করার জন্য গ্রাহককে অনুরোধ করে। এভাবে মোট ১৮ মাস সময়ে সিমটি চালু করা না হলে সেটির মালিকানা বর্তমান ব্যবহাকারকারীর থাকে না। আজ থেকে বন্ধ হওয়া সংযোগের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম প্রযোজ্য হবে।



এদিকে বিভিন্ন মুঠোফোন অপারেটরের কাছ থেকে পাওয়া হিসাব অনুযায়ী, গতকাল মঙ্গলবার শেষ দিনে প্রায় ১০ কোটি ৮০ লাখ সিম পুনর্নিবন্ধিত হয়েছে। এ সংখ্যা বর্তমানে চালু থাকা ১৩ কোটি ১৯ লাখ সিমের ৮২ শতাংশ। গ্রামীণফোনের ৫ কোটি সিম, বাংলালিংকের ২ কোটি ৭২ লাখ, রবি আজিয়াটার ২ কোটি ১০ লাখ, এয়ারটেলের ৭২ লাখ, টেলিটকের ২৩ লাখ, সিটিসেলের ২ লাখ ৫ হাজার সিম নিবন্ধিত হয়েছে।


গতকালের হিসাব অনুযায়ী নিবন্ধনের বাইরে থাকছে প্রায় আড়াই কোটি সিম। আজ থেকে বন্ধ হওয়া সিম থেকে কল করা যাবে না। তবে প্রথম দু-তিন দিন কল আসতে পারে।

Post A Comment: