ঘূর্ণিঝড় ‘রোয়ানু’ আঘাত হেনে চলে গেছে। এর পর থেকে রোদ উঠলেও বৃষ্টি বৃষ্টি ভাবটা এখনো রয়ে গেছে। দেশের কোথাও না কোথাও ঝড়ের সঙ্গে কম-বেশি বৃষ্টি হচ্ছে। বৃষ্টির প্রভাবে তাপপ্রবাহ কেটে গেছে। তাই গরম অনেকটা সহনীয়।


আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের মতে, সপ্তাহখানেক পর মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশ উপকূলে চলে আসবে। তখন বৃষ্টির মাত্রা আরও বাড়বে। আর তখন থেকে পুরোদমে বর্ষাকাল শুরু হয়ে যাবে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, দেশের সমুদ্র উপকূলীয় এলাকায় বৃষ্টি তেমন একটা হয়নি। তবে উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে বেশ ভালোই বৃষ্টি হয়েছে। আজ শুক্রবার সকাল নয়টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে ফরিদপুরে ৪৪ মিলিমিটার। এ ছাড়া খুলনায় ৩৩, চাঁদপুরে ২৪, ঈশ্বরদীতে ২২, মাদারীপুরে ১৭, গোপালগঞ্জে ১১ ও রাজধানী ঢাকায় ৩ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

আগামী ৭২ ঘণ্টায় বৃষ্টির প্রবণতা থাকতে পারে উল্লেখ করে আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাজশাহী, রংপুর, ঢাকা, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা অথবা ঝোড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি কিংবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। এ ছাড়া দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের আবহাওয়াবিদ রাশেদুজ্জামান প্রথম আলোকে বলেন, মৌসুমি বায়ু মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন পর্যন্ত চলে এসেছে। জুন মাসের প্রথম সপ্তাহে এটি বাংলাদেশে চলে আসবে। তখন বৃষ্টির পরিমাণ আরও বেড়ে যাবে। এখন বৃষ্টি হচ্ছে কালবৈশাখীর প্রভাবে।



Post A Comment: