ভিয়েতনাম আর রোমাঞ্চ? আপনি হয়তো ভাবছেন দুইটি বিষয় একসাথে যায় না। কিন্তু তা নয়। ভিয়েতনাম মূলত ছবির মত সুন্দর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে ভরপুর একটি দেশ। এর সাথে সাথেই দেশটিতে আছে রক্ত উষ্ণ করা দারুণ সব রোমাঞ্চের সুযোগ। আসুন জেনে নিই ভিয়েতনামে কী কী অপেক্ষা করছে আপনার জন্য। প্যাডেল বোর্ডিং স্কিল, মুই নি হো চি মিন সিটি থেকে খুব বেশী দূরে নয়, পূর্ব দিকের উপত্যকায় আপনি খুঁজে পাবেন মুই নি রিসোর্ট। এটি ভিয়েতনামের প্রসিদ্ধ একটি এলাকা। চমৎকার বীচ আর তার চমৎকার বালুকা বেলায় হেঁটে বেড়ানোই অনেক প্রশান্তির। কিন্তু প্রশান্তির পাশাপাশি রিসোর্টটি বাড়তি যোগ করেছে প্যাডেল বোর্ডিং। এটি একই সাথে দূর্দান্ত, রোমাঞ্চকর এবং বিস্ময়কর এক অভিজ্ঞতা। যারা আগে কখনো করেন নি তারা শিখে নিতে পারবেন এখানেই। তারপর নিজের মত সার্ফিং করতে পারবেন, মেতে উঠতে পারবেন বিশাল বড় বড় সব ঢেউ এর সাথে। মোটর বাইকে হ্যানয় থেকে হো চি মিন যে কেউ যারা হ্যানয় থেকে হো চি মিন এর পথে এই বাইক ভ্রমণ করেছেন তারা সবাই জানেন বিষয়টি কত চমৎকার!। এই রাস্তাটি পুরোই রোমাঞ্চকর অনুভূতিতে ভরপুর। সারা ভিয়েতনাম বেড়ানোর জন্যই অবশ্য বাইক চময়কার বাহন। আপনি নিজেই একটা বাইক ভাড়া নিতে পারেন অথবা একজন গাইড নিতে পারেন সাথে। ১ নং মহাসড়ক ধরে এগিয়ে যান বাইকে, ফং না এর পাশ দিয়ে চলে গেছে সড়কটি। উপভোগ করুন চমৎকার সব দৃশ্য, ফং না কে বাং- একটি বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ, এটিও দেখতে পাবেন পথে যেতে যেতে। চাইলেই থামতে পারেন, বেরিয়ে আসতে পারেন ভেতর থেকে অথবা নিজের মত খুঁজে নিতে পারেন পথের সৌন্দর্য্য। ফু কুয়কে ডাইভিং কল্পনা করুন, পাম গাছের সমারোহে টারকুইশ নীল আর সোনালী বালুর অসাধারণ একটি বীচ, সেখানে সমূদ্রের পানির রং এর দিকে তাকিয়েই কাটিয়ে দেওয়া যায় বিকেলের পর বিকেল, সেই অসাধারণ বীচটির নাম ফু কুয়ক। এটি মূলত শান্ত নিরিবিলি একটি বীচ। সব কোলাহল থেকে পালিয়ে ছুটে আসতে পারেন এখানে, কেউ বিরক্ত করবে না আপনাকে। একা একাই নিতে পারবেন সমস্ত বীচের আনন্দ, দেখতে পারবেন কোথায় কী আছে। ডাইভিং করতে পারবেন বছরের যে কোন সময়। হালং বে এর দ্বীপে কায়াক হা লং বে এক অসাধারণ জায়গা। এর সৌন্দর্য্য ভাষায় ব্যাখ্যা করা সম্ভব নয়। এটি ইউনেস্কো ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ। সব চেয়ে বেশী পর্যটক ভিড় জমায় এই হালং বে তে। স্বচ্ছ নীল পানি আর তার মাঝে বিশাল বিশাল লাইমস্টোন, হালং বে মানুষের পৃথিবীতে যেন স্বর্গ। একটি কায়াক ভাড়া করুন আর প্যাডেল ঘুরিয়ে ঘুরে বেড়ান শান্ত এই জলরাশির মাঝে। উপভোগ করুন অজানা সব গুহা আর অপ্রূপ হালং বে এর চমৎকার সব দৃশ্য। এমন স্বাধীনতা আর কোথায় পাবেন ভিয়েতনাম ছাড়া? সাপাতে সাইকেল সাপা এমন একটি জায়গা যেখানে গেলে আপনার মনে হবে এখানে ভিয়েতনামের কেউ কখনো আসে নি। যেখানে মানুষ থাইল্যান্ডের সমুদ্রের স্বচ্ছ নীল পানি আর নিউ ইয়োর্কের নিয়ন আলোর রাস্তার কথা ভেবে রোমাঞ্চিত হয় সেখানে ভিয়েতনামের রোমাঞ্চের আরেক নাম মাইলের পর মাইল সবুজ ধানের ক্ষেত। একটা বাই সাইকেল নিন আর হারিয়ে যান সবুজের ঢেউ এ।
 

  ভিয়েতনাম আর রোমাঞ্চ? আপনি হয়তো ভাবছেন দুইটি বিষয় একসাথে যায় না। কিন্তু তা নয়। ভিয়েতনাম মূলত ছবির মত সুন্দর প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্যে ভরপুর একটি দেশ। এর সাথে সাথেই দেশটিতে আছে রক্ত উষ্ণ করা দারুণ সব রোমাঞ্চের সুযোগ। আসুন জেনে নিই ভিয়েতনামে কী কী অপেক্ষা করছে আপনার জন্য।

প্যাডেল বোর্ডিং স্কিল, মুই নি
হো চি মিন সিটি থেকে খুব বেশী দূরে নয়, পূর্ব দিকের উপত্যকায় আপনি খুঁজে পাবেন মুই নি রিসোর্ট। এটি ভিয়েতনামের প্রসিদ্ধ একটি এলাকা। চমৎকার বীচ আর তার চমৎকার বালুকা বেলায় হেঁটে বেড়ানোই অনেক প্রশান্তির। কিন্তু প্রশান্তির পাশাপাশি রিসোর্টটি বাড়তি যোগ করেছে প্যাডেল বোর্ডিং। এটি একই সাথে দূর্দান্ত, রোমাঞ্চকর এবং বিস্ময়কর এক অভিজ্ঞতা। যারা আগে কখনো করেন নি তারা শিখে নিতে পারবেন এখানেই। তারপর নিজের মত সার্ফিং করতে পারবেন, মেতে উঠতে পারবেন বিশাল বড় বড় সব ঢেউ এর সাথে।

মোটর বাইকে হ্যানয় থেকে হো চি মিন
যে কেউ যারা হ্যানয় থেকে হো চি মিন এর পথে এই বাইক ভ্রমণ করেছেন তারা সবাই জানেন বিষয়টি কত চমৎকার!। এই রাস্তাটি পুরোই রোমাঞ্চকর অনুভূতিতে ভরপুর। সারা ভিয়েতনাম বেড়ানোর জন্যই অবশ্য বাইক চময়কার বাহন। আপনি নিজেই একটা বাইক ভাড়া নিতে পারেন অথবা একজন গাইড নিতে পারেন সাথে।

১ নং মহাসড়ক ধরে এগিয়ে যান বাইকে, ফং না এর পাশ দিয়ে চলে গেছে সড়কটি। উপভোগ করুন চমৎকার সব দৃশ্য, ফং না কে বাং- একটি বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ, এটিও দেখতে পাবেন পথে যেতে যেতে। চাইলেই থামতে পারেন, বেরিয়ে আসতে পারেন ভেতর থেকে অথবা নিজের মত খুঁজে নিতে পারেন পথের সৌন্দর্য্য।

ফু কুয়কে ডাইভিং
কল্পনা করুন, পাম গাছের সমারোহে টারকুইশ নীল আর সোনালী বালুর অসাধারণ একটি বীচ, সেখানে সমূদ্রের পানির রং এর দিকে তাকিয়েই কাটিয়ে দেওয়া যায় বিকেলের পর বিকেল, সেই অসাধারণ বীচটির নাম ফু কুয়ক। এটি মূলত শান্ত নিরিবিলি একটি বীচ। সব কোলাহল থেকে পালিয়ে ছুটে আসতে পারেন এখানে, কেউ বিরক্ত করবে না আপনাকে। একা একাই নিতে পারবেন সমস্ত বীচের আনন্দ, দেখতে পারবেন কোথায় কী আছে। ডাইভিং করতে পারবেন বছরের যে কোন সময়।

হালং বে এর দ্বীপে কায়াক
হা লং বে এক অসাধারণ জায়গা। এর সৌন্দর্য্য ভাষায় ব্যাখ্যা করা সম্ভব নয়। এটি ইউনেস্কো ঘোষিত বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ। সব চেয়ে বেশী পর্যটক ভিড় জমায় এই হালং বে তে। স্বচ্ছ নীল পানি আর তার মাঝে বিশাল বিশাল লাইমস্টোন, হালং বে মানুষের পৃথিবীতে যেন স্বর্গ। একটি কায়াক ভাড়া করুন আর প্যাডেল ঘুরিয়ে ঘুরে বেড়ান শান্ত এই জলরাশির মাঝে। উপভোগ করুন অজানা সব গুহা আর অপ্রূপ হালং বে এর চমৎকার সব দৃশ্য। এমন স্বাধীনতা আর কোথায় পাবেন ভিয়েতনাম ছাড়া?

সাপাতে সাইকেল
সাপা এমন একটি জায়গা যেখানে গেলে আপনার মনে হবে এখানে ভিয়েতনামের কেউ কখনো আসে নি। যেখানে মানুষ থাইল্যান্ডের সমুদ্রের স্বচ্ছ নীল পানি আর নিউ ইয়োর্কের নিয়ন আলোর রাস্তার কথা ভেবে রোমাঞ্চিত হয় সেখানে ভিয়েতনামের রোমাঞ্চের আরেক নাম মাইলের পর মাইল সবুজ ধানের ক্ষেত। একটা বাই সাইকেল নিন আর হারিয়ে যান সবুজের ঢেউ এ।

Post A Comment: