বৈশাখের চাটনি রেসিপি পয়লা বৈশাখ মানেই বাঙালি খাবারের রমরমা দিন। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে খাদ্যরুচিতে পরিবর্তন আসায় অনেকে এখন ট্র্যাডিশনাল বাংলা খাবারে ভিন্নতা আনার চেষ্টা করছেন। যারা ভোজনরসিক তারা সবসময় একধরনের খাবার খেতে খেতে ক্লান্ত হয়ে পড়েন। তাই চেনা খাবারে বৈচিত্র্য আনতে এই চাটনি রেসিপি ট্রাই করতে পারেন। এবারের পয়লা বৈশাখে পান্তা-ইলিশের সঙ্গেও এটি কিন্তু জমবে বেশ। আম-বেদানার চাটনি উপকরণ কাঁচা আম ছোট কিউব করে খোসাসহ কাটা – ২ কাপ, বেদানা – ৮ টেবিল চামচ, সরিষার তেল – ৩ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ গুড়ো – ১/২ চা চামচ, লবণ – ১ চা চামচ, আদা ভাঙা কালো গোলমরিচ – ১/২ চা চামচ, মৌরি – ১ চা চামচ, মেথি – ১/২ চা চামচ, চাট মশলা – ২ চা চামচ, চিনি – ১/৩ কাপ। প্রস্তুত প্রণালি তেল গরম করে তাতে গোল মরিচ, মৌরি ও মেথি দিয়ে ফোঁড়ন দিন। এরপর এতে আম ও লবণ দিয়ে ভাজুন। এখন এতে মরিচের গুঁড়ো দিয়ে কষান। কিছুক্ষণ কষানোর পরে এতে ১ কাপ পানি ও চিনি দিন। জ্বাল দিয়ে ঘন থকথকে হয়ে গেলে নামিয়ে তাতে চাট মশলা দিয়ে নিন। এবার বেদানা মিশিয়ে পরিবেশন করুন। আনারসের চাটনি উপকরণ আনারস কুড়ানো – ২ কাপ, সরিষার তেল – ৩ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ – ২টা, পাঁচফোড়ন – ১/২ চা চামচ, চিনি – ১/২ কাপ, লবণ – ১/২ চা চামচ, মৌরি – ১ চা চামচ, জিরা – ১ চা চামচ, জইন – ১/২ চা চামচ এবং রাঁধুনি – ১/২ চা চামচ)। প্রস্তুত প্রণালি আনারস লবণ ও চিনি মিশিয়ে ১/২ কাপ পানি দিয়ে সিদ্ধ করুন। আঠা আঠা হলে নামিয়ে ফেলুন। এবার কড়াইতে তেল গরম করুন। তেলে শুকনা মরিচ আর পাঁচফোড়ন দিয়ে নাড়ুন। এবার এতে আনারস ঢেলে দিন। ফুটে উঠলে ১ চা চামচ ভাজা মশলার গুড়ো মিশিয়ে নিন। আম-কিশমিশের চাটনি উপকরণ পাকা আম - ১/২ কেজি, চিনি - ১ কাপ, কিশমিশ - ২ টেবিল চামচ, আদা বাটা - ১ চা চামচ, রসুন বাটা - ১ চা চামচ, সাদা সিরকা - ১ কাপ, মরিচ গুঁড়া - ২ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া - ১ চা চামচ, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া - আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া - ১ চিমটি, সয়াবিন তেল - ২ চা চামচ। প্রস্তুত প্রণালি আম ধুয়ে খোসা ফেলে ফালি ফালি করে কেটে নিন। কিশমিশও ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। এবার আদা ও রসুন ভিনেগার দিয়ে বাটুন। বাটার সময় পানি ব্যবহার করবেন না। কড়াইয়ে তেল গরম করে বাটা মসলা কষিয়ে নিন। এবার কড়াইয়ে বাকি উপকরণ দিয়ে নেড়ে আঁচ কমিয়ে দিন। সবকিছু সিদ্ধ হয়ে মাখা মাখা হয়ে তেল ওপরে উঠলে নামিয়ে ফেলুন।
 

    পয়লা বৈশাখ মানেই বাঙালি খাবারের রমরমা দিন। তবে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে খাদ্যরুচিতে পরিবর্তন আসায় অনেকে এখন ট্র্যাডিশনাল বাংলা খাবারে ভিন্নতা আনার চেষ্টা করছেন। যারা ভোজনরসিক তারা সবসময় একধরনের খাবার খেতে খেতে ক্লান্ত হয়ে পড়েন। তাই চেনা খাবারে বৈচিত্র্য আনতে এই চাটনি রেসিপি ট্রাই করতে পারেন। এবারের পয়লা বৈশাখে পান্তা-ইলিশের সঙ্গেও এটি কিন্তু জমবে বেশ।


আম-বেদানার চাটনি


উপকরণ

কাঁচা আম ছোট কিউব করে খোসাসহ কাটা – ২ কাপ, বেদানা – ৮ টেবিল চামচ, সরিষার তেল – ৩ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ গুড়ো – ১/২ চা চামচ, লবণ – ১ চা চামচ, আদা ভাঙা কালো গোলমরিচ – ১/২ চা চামচ, মৌরি – ১ চা চামচ, মেথি – ১/২ চা চামচ, চাট মশলা – ২ চা চামচ, চিনি – ১/৩ কাপ।

প্রস্তুত প্রণালি

তেল গরম করে তাতে গোল মরিচ, মৌরি ও মেথি দিয়ে ফোঁড়ন দিন। এরপর এতে আম ও লবণ দিয়ে ভাজুন। এখন এতে মরিচের গুঁড়ো দিয়ে কষান। কিছুক্ষণ কষানোর পরে এতে ১ কাপ পানি ও চিনি দিন। জ্বাল দিয়ে ঘন থকথকে হয়ে গেলে নামিয়ে তাতে চাট মশলা দিয়ে নিন। এবার বেদানা মিশিয়ে পরিবেশন করুন।


আনারসের চাটনি


উপকরণ

আনারস কুড়ানো – ২ কাপ, সরিষার তেল – ৩ টেবিল চামচ, শুকনা মরিচ – ২টা, পাঁচফোড়ন – ১/২ চা চামচ, চিনি – ১/২ কাপ, লবণ – ১/২ চা চামচ, মৌরি – ১ চা চামচ, জিরা – ১ চা চামচ, জইন – ১/২ চা চামচ এবং রাঁধুনি – ১/২ চা চামচ)।

প্রস্তুত প্রণালি
আনারস লবণ ও চিনি মিশিয়ে ১/২ কাপ পানি দিয়ে সিদ্ধ করুন। আঠা আঠা হলে নামিয়ে ফেলুন। এবার কড়াইতে তেল গরম করুন। তেলে শুকনা মরিচ আর পাঁচফোড়ন দিয়ে নাড়ুন। এবার এতে আনারস ঢেলে দিন। ফুটে উঠলে ১ চা চামচ ভাজা মশলার গুড়ো মিশিয়ে নিন।


আম-কিশমিশের চাটনি


উপকরণ
পাকা আম - ১/২ কেজি, চিনি - ১ কাপ, কিশমিশ - ২ টেবিল চামচ, আদা বাটা - ১ চা চামচ, রসুন বাটা - ১ চা চামচ, সাদা সিরকা - ১ কাপ, মরিচ গুঁড়া - ২ চা চামচ, গরম মসলা গুঁড়া - ১ চা চামচ, সাদা গোলমরিচ গুঁড়া - আধা চা চামচ, হলুদ গুঁড়া - ১ চিমটি, সয়াবিন তেল - ২ চা চামচ।

প্রস্তুত প্রণালি
আম ধুয়ে খোসা ফেলে ফালি ফালি করে কেটে নিন। কিশমিশও ধুয়ে পরিষ্কার করে নিন। এবার আদা ও রসুন ভিনেগার দিয়ে বাটুন। বাটার সময় পানি ব্যবহার করবেন না। কড়াইয়ে তেল গরম করে বাটা মসলা কষিয়ে নিন। এবার কড়াইয়ে বাকি উপকরণ দিয়ে নেড়ে আঁচ কমিয়ে দিন। সবকিছু সিদ্ধ হয়ে মাখা মাখা হয়ে তেল ওপরে উঠলে নামিয়ে ফেলুন।

Post A Comment: