বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর বাংলালিংক আরেকবারের মতো এক নম্বর ওয়ানডে ক্রিকেট অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও উম্মে আহমেদ শিশিরের সাথে জুটি বাঁধতে সক্ষম হয়েছে। আগামী দুই বছরের জন্য তারা বাংলালিংকের প্রতিনিধিত্ব করবেন। বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর বাংলালিংক দ্বিতীয়বারের মতো এক নম্বর ওয়ানডে ক্রিকেট অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও উম্মে আহমেদ শিশিরের সাথে জুটি বাঁধতে সক্ষম হয়েছে। আগামী দুই বছরের জন্য তারা বাংলালিংকের প্রতিনিধিত্ব করবেন। নতুন এই ডিজিটাল সময়ে তারা বাংলালিংকের প্রতিনিধিত্ব করবেন। বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার, বাংলাদেশের গর্ব সাকিব আল হাসান এবং তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশিরকে আজ সোমবার একটি প্রেস ইভেন্টে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলালিংকের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ঘোষণা করা হয়। বাংলালিংক একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে এবং ভবিষ্যতের জন্য একটি সত্যিকারের ডিজিটাল কোম্পানীতে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছে। সেই লক্ষ্যে স্থির থেকে বাংলালিংক নিয়ে আসছে যুগান্তকারী এবং নতুন সব সেবাসমূহ যা জনগণের জীবনে মৌলিক ভিত্তিতে পরিবর্তন আনবে এবং তাদের জীবনে আরো স্বাচ্ছন্দ্য নিয়ে আসবে। বাংলালিংক একটি নতুন দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। ডিজিটাল এবং আরো ডাটাভিত্তিক হবার বাংলালিংকের এই পরিবর্তনের পথে সাকিব এবং শিশির সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করবেন। সাকিব বাংলাদেশের অত্যন্ত জনপ্রিয় একজন ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব। সাকিব তার অধ্যবসায়, মেধা, দক্ষতা এবং একাগ্রতার মাধ্যমে নিজেকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছেন। বাংলালিংক তার সাথে একত্রিত হতে পেরে গর্বিত এবং সাকিবের দৃষ্টান্ত অনুসরণের মাধ্যমে বাংলালিংকও একটি বিশ্বমানের ডিজিটাল কোম্পানীতে পরিণত হতে চায়। বাংলালিংক উদ্ভাবনের মাধ্যমে সেরা মানের সেবা প্রদানের মাধ্যমে মানুষের ক্ষমতায়ন করতে চায় এবং এর মাধ্যমে মানুষের ভালবাসা অর্জন করতে চায়। এরিক অস্ তার বক্তব্যে বলেন, “ক্রিকেট বাংলাদেশের মানুষের রক্তে মিশে রয়েছে। বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এবং তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশিরকে আমাদের সাথে পেয়ে আমরা নিজেদের ভাগ্যবান মনে করছি। ক্রিকেট আমাদের সকলকে একসাথে নিয়ে আসে এবং সারাদেশকে একতাবদ্ধ করে। সাকিবের সাথে এই সহযোগিতার মাধ্যমে আমরা এই দেশের প্রতি এবং এই দেশের মানুষের প্রতি আমাদের অঙ্গীকারকে পুনরায় নিশ্চিত করতে চাই। বাংলালিংকের জন্য এটি একটি দারুণ দিন এবং ডিজিটাল যুগে বাংলালিংকের এগিয়ে যাবার এই পথে সাকিব এবং শিশিরকে সাথে পেয়ে আমরা আনন্দিত এবং আশা করি গ্রাহকদের জন্য আমরা নতুন নতুন সম্ভাবনার দ্বার খুলতে সক্ষম হব”। সাকিব তার বক্তব্যে বলেন, “বাংলালিংক দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য এবং দেশের মানুষের ক্ষমতায়নের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমি এর অংশীদার হতে পেরে আনন্দিত এবং সম্মানীত বোধ করছি এবং বাংলালিংককে বাংলাদেশের মানুষের মনের কাছাকাছি নিয়ে যেতে আমি কাজ করে যাব”।

বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর  বাংলালিংক আরেকবারের মতো এক নম্বর ওয়ানডে ক্রিকেট অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও উম্মে আহমেদ শিশিরের সাথে জুটি বাঁধতে সক্ষম হয়েছে। আগামী দুই বছরের জন্য তারা বাংলালিংকের প্রতিনিধিত্ব করবেন। 


বাংলাদেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম মোবাইল অপারেটর  বাংলালিংক দ্বিতীয়বারের মতো এক নম্বর ওয়ানডে ক্রিকেট অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান ও উম্মে আহমেদ শিশিরের সাথে জুটি বাঁধতে সক্ষম হয়েছে। আগামী দুই বছরের জন্য তারা বাংলালিংকের প্রতিনিধিত্ব করবেন। নতুন এই ডিজিটাল সময়ে তারা বাংলালিংকের প্রতিনিধিত্ব করবেন। বিশ্বের সেরা অলরাউন্ডার, বাংলাদেশের গর্ব সাকিব আল হাসান এবং তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশিরকে আজ সোমবার একটি প্রেস ইভেন্টে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলালিংকের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হিসেবে ঘোষণা করা হয়।

বাংলালিংক একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে এবং ভবিষ্যতের জন্য একটি সত্যিকারের ডিজিটাল কোম্পানীতে রূপান্তরিত হতে যাচ্ছে। সেই লক্ষ্যে স্থির থেকে বাংলালিংক নিয়ে আসছে যুগান্তকারী এবং নতুন সব সেবাসমূহ যা জনগণের জীবনে মৌলিক ভিত্তিতে পরিবর্তন আনবে এবং তাদের জীবনে আরো স্বাচ্ছন্দ্য নিয়ে আসবে।

বাংলালিংক একটি নতুন দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। ডিজিটাল এবং আরো ডাটাভিত্তিক হবার বাংলালিংকের এই পরিবর্তনের পথে সাকিব এবং শিশির সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করবেন। সাকিব বাংলাদেশের অত্যন্ত জনপ্রিয় একজন ক্রিকেট ব্যক্তিত্ব। সাকিব তার অধ্যবসায়, মেধা, দক্ষতা এবং একাগ্রতার মাধ্যমে নিজেকে এক অনন্য উচ্চতায় নিয়ে গিয়েছেন। বাংলালিংক তার সাথে একত্রিত হতে পেরে গর্বিত এবং সাকিবের দৃষ্টান্ত অনুসরণের মাধ্যমে বাংলালিংকও একটি বিশ্বমানের ডিজিটাল কোম্পানীতে পরিণত হতে চায়। বাংলালিংক উদ্ভাবনের মাধ্যমে সেরা মানের সেবা প্রদানের মাধ্যমে মানুষের ক্ষমতায়ন করতে চায় এবং এর মাধ্যমে মানুষের ভালবাসা অর্জন করতে চায়।

এরিক অস্ তার বক্তব্যে বলেন, “ক্রিকেট বাংলাদেশের মানুষের রক্তে মিশে রয়েছে। বিশ্বের এক নম্বর অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান এবং তার স্ত্রী উম্মে আহমেদ শিশিরকে আমাদের সাথে পেয়ে আমরা নিজেদের ভাগ্যবান মনে করছি। ক্রিকেট আমাদের সকলকে একসাথে নিয়ে আসে এবং সারাদেশকে একতাবদ্ধ করে। সাকিবের সাথে এই সহযোগিতার মাধ্যমে আমরা এই দেশের প্রতি এবং এই দেশের মানুষের প্রতি আমাদের  অঙ্গীকারকে পুনরায় নিশ্চিত করতে চাই। বাংলালিংকের জন্য এটি একটি দারুণ দিন এবং ডিজিটাল যুগে বাংলালিংকের এগিয়ে যাবার এই পথে সাকিব এবং শিশিরকে সাথে পেয়ে আমরা আনন্দিত এবং আশা করি গ্রাহকদের জন্য আমরা নতুন নতুন সম্ভাবনার দ্বার খুলতে সক্ষম হব”।

সাকিব তার বক্তব্যে বলেন, “বাংলালিংক দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য এবং দেশের মানুষের ক্ষমতায়নের জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। আমি এর অংশীদার হতে পেরে আনন্দিত এবং সম্মানীত বোধ করছি এবং বাংলালিংককে বাংলাদেশের মানুষের মনের কাছাকাছি নিয়ে যেতে আমি কাজ করে যাব”।

Post A Comment: