স্থলের চেয়ে জলের বিস্ময় অনেক গুণ বেশি। বিশাল অ্যাকুয়ারিয়াম সেই সৌন্দর্যটাকেই আমাদের সামনে উপস্থাপন করে। সামুদ্রিক প্রাণীদের দেখার আনন্দ উপভোগ করার আদর্শ স্থান হচ্ছে অ্যাকুয়ারিয়াম। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যে বিস্ময়কর অ্যাকুয়ারিয়ামগুলো আছে সেগুলো সম্পর্কে জেনে নেই চলুন। ১। সাংহাই ওশান অ্যাকুয়ারিয়াম এটি এশিয়ার সবচেয়ে বড় অ্যাকুয়ারিয়াম। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটি এক মিলিয়ন গ্যালন পানি ধারণ করে। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটিকে ভৌগলিক অঞ্চল অনুযায়ী বিভক্ত করা হয়েছে যেমন- চীন জোন, অস্ট্রেলিয়ান জোন ইত্যাদি। এখানে বিপন্ন প্রজাতির প্রাণীর সংগ্রহ আছে। সাংহাই ওশান অ্যাকুয়ারিয়ামে এই গ্রহের সবচেয়ে দীর্ঘ আন্ডার ওয়াটার টানেল আছে যার পরিমাণ ৫০৯ ফুট। ২। সি অ্যাকুয়ারিয়াম সিঙ্গাপুরের দ্যা সাউথ ইস্ট এশিয়া অ্যাকুয়ারিয়াম ২০১২ সালে উদ্বোধন করা হয়। এটি বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অ্যাকুয়ারিয়াম। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটি ওয়ার্ল্ড সেন্টোসা কমপ্লেক্স রিসোর্ট এর একটি অংশ। ১২ মিলিয়ন গ্যালন পানির ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন এই অ্যাকুয়ারিয়ামটিতে ৮০০ প্রজাতির সামুদ্রিক প্রাণী আছে। ৩। জর্জিয়া অ্যাকুয়ারিয়াম পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ও চমৎকার অ্যাকুয়ারিয়াম হচ্ছে আটলান্টার জর্জিয়া অ্যাকুয়ারিয়াম। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটিতে ৫০০ প্রজাতির ১ লক্ষ ২০ হাজার জলজ প্রানী আছে। ২০০৫ সালে উদ্বোধন করা হয় এটি। প্রদর্শনীর জন্য ৬০ টি বিভাগ আছে এখানে যা ৫টি জোনে বিভক্ত যেমন- ওশান ভয়েজার, জর্জিয়া এক্সপ্লোরার, ট্রপিক্যাল ড্রাইভার, রিভার স্কাউট এবং কোল্ড ওয়াটার কুইস্ট। ওশান ভয়েজার জোনে ৬.৩ গ্যালন পানি ধারণ করে এবং এখানে তিমি হাঙ্গরদের বাস। ৪। মন্টেরি বে অ্যাকুয়ারিয়াম ক্যালিফোর্নিয়ার মন্টেরি বে অ্যাকুয়ারিয়ামটি আমেরিকা মহাদেশের সবচেয়ে বৈশিষ্ট্যময় ও আকর্ষণীয় অ্যাকুয়ারিয়াম। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটিতে আছে সিল, তিমি, জেলিফিশ, সারডিন, ওলফ ঈল ও হাঙ্গর। ১৯৮৪ সালে এটি উন্মুক্ত করা হয়। এতে অনেক বিপন্ন প্রাণী ও সংরক্ষিত আছে। এখানে ৬০০ প্রজাতির ৩৫ হাজার জলজ প্রাণী আছে। ৫। দুবাই মল অ্যাকুয়ারিয়াম পৃথিবীর সবচেয়ে বড় শপিং মলের একটি হচ্ছে দুবাই শপিং মল। এই শপিং মলেই আছে পৃথিবীর সবচেয়ে আকর্ষণীয় দুবাই মল অ্যাকুয়ারিয়ামটি। ২.৬৪ মিলিয়ন গ্যালন পানির ধারণক্ষমতা সম্পন্ন এই অ্যাকুয়ারিয়ামে ৯০ প্রজাতির ৩৩ হাজার সামুদ্রিক প্রাণী আছে। এটি ৮.৩ মিটার উঁচু এবং ৩২.৮৮ মিটার প্রশস্ত অ্যাক্রিলিক গ্লাসের তৈরি প্যানেল এর অ্যাকুরিয়াম, যা এই ধরণের অ্যাকুয়ারিয়ামগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বড়। বিশ্বের আরো কিছু বিখ্যাত অ্যাকুয়ারিয়াম হচ্ছে – বার্লিনের দ্যা অ্যাকুয়াডম অ্যাকুয়ারিয়াম, ইস্তাম্বুলের টুরকুয়াজু অ্যাকুয়ারিয়াম, অস্ট্রেলিয়ার পার্থের অ্যাকুয়ারিয়াম অফ ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া, ডারবানের উশাকা মেরিন ওয়ার্ল্ড, স্পেনের ভেলেন্সিয়ার এল ওশানোগ্রাফিক অ্যাকুয়ারিয়াম ইত্যাদি।
 

     স্থলের চেয়ে জলের বিস্ময় অনেক গুণ বেশি। বিশাল অ্যাকুয়ারিয়াম সেই সৌন্দর্যটাকেই আমাদের সামনে উপস্থাপন করে। সামুদ্রিক প্রাণীদের দেখার আনন্দ উপভোগ করার আদর্শ স্থান হচ্ছে অ্যাকুয়ারিয়াম। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে যে বিস্ময়কর অ্যাকুয়ারিয়ামগুলো আছে সেগুলো সম্পর্কে জেনে নেই চলুন।

১। সাংহাই ওশান অ্যাকুয়ারিয়াম
এটি এশিয়ার সবচেয়ে বড় অ্যাকুয়ারিয়াম। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটি এক মিলিয়ন গ্যালন পানি ধারণ করে। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটিকে ভৌগলিক অঞ্চল অনুযায়ী বিভক্ত করা হয়েছে যেমন- চীন জোন, অস্ট্রেলিয়ান জোন ইত্যাদি। এখানে বিপন্ন প্রজাতির প্রাণীর সংগ্রহ আছে। সাংহাই ওশান অ্যাকুয়ারিয়ামে এই গ্রহের সবচেয়ে দীর্ঘ আন্ডার ওয়াটার টানেল আছে যার পরিমাণ ৫০৯ ফুট।

২। সি অ্যাকুয়ারিয়াম
সিঙ্গাপুরের দ্যা সাউথ ইস্ট এশিয়া অ্যাকুয়ারিয়াম ২০১২ সালে উদ্বোধন করা হয়। এটি বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অ্যাকুয়ারিয়াম। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটি ওয়ার্ল্ড সেন্টোসা কমপ্লেক্স রিসোর্ট এর একটি অংশ। ১২ মিলিয়ন গ্যালন পানির ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন এই  অ্যাকুয়ারিয়ামটিতে ৮০০ প্রজাতির সামুদ্রিক প্রাণী আছে।

৩। জর্জিয়া অ্যাকুয়ারিয়াম
পৃথিবীর সবচেয়ে বড় ও চমৎকার অ্যাকুয়ারিয়াম হচ্ছে আটলান্টার জর্জিয়া অ্যাকুয়ারিয়াম। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটিতে ৫০০ প্রজাতির ১ লক্ষ ২০ হাজার জলজ প্রানী আছে। ২০০৫ সালে উদ্বোধন করা হয় এটি। প্রদর্শনীর জন্য ৬০ টি বিভাগ আছে এখানে যা ৫টি জোনে বিভক্ত যেমন- ওশান ভয়েজার, জর্জিয়া এক্সপ্লোরার, ট্রপিক্যাল ড্রাইভার, রিভার স্কাউট এবং কোল্ড ওয়াটার কুইস্ট। ওশান ভয়েজার জোনে ৬.৩ গ্যালন পানি ধারণ করে এবং এখানে তিমি হাঙ্গরদের বাস।

৪। মন্টেরি বে অ্যাকুয়ারিয়াম
ক্যালিফোর্নিয়ার মন্টেরি বে অ্যাকুয়ারিয়ামটি আমেরিকা মহাদেশের সবচেয়ে বৈশিষ্ট্যময় ও আকর্ষণীয় অ্যাকুয়ারিয়াম। এই অ্যাকুয়ারিয়ামটিতে আছে সিল, তিমি, জেলিফিশ, সারডিন, ওলফ ঈল ও হাঙ্গর। ১৯৮৪ সালে এটি উন্মুক্ত করা হয়। এতে অনেক বিপন্ন প্রাণী ও সংরক্ষিত আছে। এখানে ৬০০ প্রজাতির ৩৫ হাজার জলজ প্রাণী আছে।

৫। দুবাই মল অ্যাকুয়ারিয়াম
পৃথিবীর সবচেয়ে বড় শপিং মলের একটি হচ্ছে দুবাই শপিং মল। এই শপিং মলেই আছে পৃথিবীর সবচেয়ে আকর্ষণীয় দুবাই মল অ্যাকুয়ারিয়ামটি। ২.৬৪ মিলিয়ন গ্যালন পানির ধারণক্ষমতা সম্পন্ন এই অ্যাকুয়ারিয়ামে ৯০ প্রজাতির ৩৩ হাজার সামুদ্রিক প্রাণী আছে। এটি ৮.৩ মিটার উঁচু এবং ৩২.৮৮ মিটার প্রশস্ত অ্যাক্রিলিক গ্লাসের তৈরি প্যানেল এর অ্যাকুরিয়াম, যা এই ধরণের অ্যাকুয়ারিয়ামগুলোর মধ্যে সবচেয়ে  বড়।   

বিশ্বের আরো কিছু বিখ্যাত অ্যাকুয়ারিয়াম হচ্ছে – বার্লিনের দ্যা অ্যাকুয়াডম অ্যাকুয়ারিয়াম, ইস্তাম্বুলের টুরকুয়াজু অ্যাকুয়ারিয়াম, অস্ট্রেলিয়ার পার্থের অ্যাকুয়ারিয়াম অফ ওয়েস্টার্ন অস্ট্রেলিয়া, ডারবানের উশাকা মেরিন ওয়ার্ল্ড, স্পেনের ভেলেন্সিয়ার এল ওশানোগ্রাফিক অ্যাকুয়ারিয়াম ইত্যাদি।

Post A Comment: