ত্বকের যত্নে আমরা অনেক কিছুই করে থাকি। নানা ফেসপ্যাক, ক্রিম কত কিছুই না ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু মুখের ত্বকের সাথে সাথে আমাদের শরীরের অন্যান্য অংশও রোদে পুড়ে যাচ্ছে। বরং মুখের চেয়ে এই অংশগুলো বেশি পুড়ে থাকে। এমন একটি অঙ্গ হল আমাদের পা। যা আমরা সবাই অবহেলা করে থাকি। এই গরমে ত্বকের পাশাপাশি হাত পায়েরও প্রয়োজন পড়ে বাড়তি যত্নের। ঘরোয়া কিছু উপায়ে করে ফেলুন হাত এবং পায়ের যত্ন। ১। লেবু এবং লবণ দুই টেবিল চামচ লবণের সাথে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি পায়ে ভাল করে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বক এক্সফলিয়েট করে থাকে। লবণ প্রাকৃতিক স্কার্ব হিসেবে কাজ করে রোদে পোড়া ভাব দূর করে থাকে। ২। চন্দনের গুঁড়ো এবং টমেটো এক টেবিল চামচ চন্দনের গুঁড়ো, এক চা চামচ টমেটোর রস, এক চা চামচ শসার রস, এবং এক চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি ত্বকে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত এই প্যাক ব্যবহারে পায়ের কালো দাগ দূর করে দিবে। ৩। আলু একটি আলু ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে জুস করে নিন। এই রস পায়ে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। ১০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে এক টুকরো আলু নিয়ে পায়ে ম্যাসাজ করতে পারেন। আলুর রসে প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান রয়েছে যা রোদে পোড়া দাগ দূর করে থাকে। ৪। দুধ এবং কমলার খোসা গুঁড়ো কমলার খোসা গুঁড়ো করে নিন। এর সাথে দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। কিছুটা পাতলা পেস্ট তৈরি করুন। এইবার পেস্টটি পায়ে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দুধের ল্যাটিক অ্যাসিড প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান যা ত্বকের পিগমেনশন রোদে পোড়াভাব দূর করে দিয়ে থাকে। ৫। বেসন এবং হলুদের পেস্ট সমপরিমাণ হলুদ এবং বেসন তার সাথে টকদই এবং লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি পায়ে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করুন।


  ত্বকের যত্নে আমরা অনেক কিছুই করে থাকি। নানা ফেসপ্যাক, ক্রিম কত কিছুই না ব্যবহার করে থাকি। কিন্তু মুখের ত্বকের সাথে সাথে আমাদের শরীরের অন্যান্য অংশও রোদে পুড়ে যাচ্ছে। বরং মুখের চেয়ে এই অংশগুলো বেশি পুড়ে থাকে। এমন একটি অঙ্গ হল আমাদের পা। যা আমরা সবাই অবহেলা করে থাকি। এই গরমে ত্বকের পাশাপাশি হাত পায়েরও প্রয়োজন পড়ে বাড়তি যত্নের। ঘরোয়া কিছু উপায়ে করে ফেলুন হাত এবং পায়ের যত্ন।



১। লেবু এবং লবণ
দুই টেবিল চামচ লবণের সাথে কয়েক ফোঁটা লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি পায়ে ভাল করে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি ত্বক এক্সফলিয়েট করে থাকে। লবণ প্রাকৃতিক স্কার্ব হিসেবে কাজ করে রোদে পোড়া ভাব দূর করে থাকে।

২। চন্দনের গুঁড়ো এবং টমেটো
এক টেবিল চামচ চন্দনের গুঁড়ো, এক চা চামচ টমেটোর রস, এক চা চামচ শসার রস, এবং এক চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি ত্বকে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। নিয়মিত এই প্যাক ব্যবহারে পায়ের কালো দাগ দূর করে দিবে।

৩। আলু
একটি আলু ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে জুস করে নিন। এই রস পায়ে ম্যাসাজ করে লাগিয়ে নিন। ১০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। আপনি চাইলে এক টুকরো আলু নিয়ে পায়ে ম্যাসাজ করতে পারেন। আলুর রসে প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান রয়েছে যা রোদে পোড়া দাগ দূর করে থাকে।

৪। দুধ এবং কমলার খোসা গুঁড়ো
কমলার খোসা গুঁড়ো করে নিন। এর সাথে দুধ মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করুন। কিছুটা পাতলা পেস্ট তৈরি করুন। এইবার পেস্টটি পায়ে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দুধের ল্যাটিক অ্যাসিড প্রাকৃতিক ব্লিচিং উপাদান যা ত্বকের পিগমেনশন রোদে পোড়াভাব দূর করে দিয়ে থাকে।

৫। বেসন এবং হলুদের পেস্ট
সমপরিমাণ হলুদ এবং বেসন তার সাথে টকদই এবং লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। এই পেস্টটি পায়ে লাগিয়ে নিন। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই প্যাকটি সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করুন।

Post A Comment: