আইপিএল নবম এর প্রথম ম্যাচে জয়ের নায়ক অজিঙ্কা রাহানে ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টস। শনিবার তারা ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে। শনিবার মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আইপিএলের প্রথম ম্যাচে টসে জিতে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু ব্যাটিংয়ে শুরু থেকেই ব্যর্থ হয় স্বাগতিক দলের ব্যাটসম্যানরা। দলীয় ৩০ রানেই প্রথম চার ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফিরে যান। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১২১ রান করে রোহিত শর্মার দল। তাও আবার হারিয়ে যাওয়া হরভজন সিংয়ের সৌজন্যে। এদিন হরভজনই ৩০ বলে ৭ চার ও ১ ছক্কায় সর্বোচ্চ ৪৫ রান করে মুম্বাইয়ের এক’শর কোটা পার করেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২২ রান করেন আম্বাতি রাইডু। রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টসের হয়ে ইশান্ত শর্মা ও মিচেল মার্শ দুটি করে উইকেট লাভ করেন। সহজ লক্ষ্যে খেলতে নামলে পুনে সুপারজায়ান্টসের উদ্বোধনী জুটিতেই আসে ৭৮ রান। পুরো ম্যাচেই মুম্বাইয়ের হয়ে আলো ছড়ানো হরভজনের বলে ৩৪ রান করে ফাফ ডু প্লেসিস আউট হলেও অপরাজিত ছিলেন আরেক ওপেনার অজিঙ্কা রাহানে। শেষ পর্যন্ত ৬৬ রানে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন তিনি। সেইসঙ্গে ম্যাচ সেরার পুরস্কারটাও জিতেন রাহানে। ২১ রান করে অপরাজিত থাকেন কেভিন পিটারসেনও।

 

  ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টস। শনিবার তারা ৯ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে।শনিবার মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে আইপিএলের প্রথম ম্যাচে টসে জিতে মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয়। কিন্তু ব্যাটিংয়ে শুরু থেকেই ব্যর্থ হয় স্বাগতিক দলের ব্যাটসম্যানরা।

দলীয় ৩০ রানেই প্রথম চার ব্যাটসম্যান সাজঘরে ফিরে যান। শেষ পর্যন্ত ৮ উইকেটে ১২১ রান করে রোহিত শর্মার দল। তাও আবার হারিয়ে যাওয়া হরভজন সিংয়ের সৌজন্যে। এদিন হরভজনই ৩০ বলে ৭ চার ও ১ ছক্কায় সর্বোচ্চ ৪৫ রান করে মুম্বাইয়ের এক’শর কোটা পার করেন। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ২২ রান করেন আম্বাতি রাইডু। রাইজিং পুনে সুপারজায়ান্টসের হয়ে ইশান্ত শর্মা ও মিচেল মার্শ দুটি করে উইকেট লাভ করেন।

সহজ লক্ষ্যে খেলতে নামলে পুনে সুপারজায়ান্টসের উদ্বোধনী জুটিতেই আসে ৭৮ রান। পুরো ম্যাচেই মুম্বাইয়ের হয়ে আলো ছড়ানো হরভজনের বলে ৩৪ রান করে ফাফ ডু প্লেসিস আউট হলেও অপরাজিত ছিলেন আরেক ওপেনার অজিঙ্কা রাহানে। শেষ পর্যন্ত ৬৬ রানে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন তিনি।

সেইসঙ্গে ম্যাচ সেরার পুরস্কারটাও জিতেন রাহানে। ২১ রান করে অপরাজিত থাকেন কেভিন পিটারসেনও।

Post A Comment: