আইন কানুন রক্ষার দায়িত্ব ছেড়ে যখন কোনো পুলিশ আইনের অপব্যবহার করে স্বার্থ উদ্ধারে লিপ্ত থাকে তখনই তিনি দুর্নীতিগ্রস্তের তালিকায় নাম লেখান। আর পুলিশের দুর্নীতির কারণে সমাজের যেমন ক্ষতি হয় তেমনি রাষ্ট্রীয় কাঠামোও দুর্বল হয়ে পড়ে। বিশ্বের সব দেশে যেমন ভালো পুলিশ সদস্য রয়েছেন তেমনি রয়েছেন দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ওনডার্সলিস্ট এ শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে। বিশ্বের যে ১০ দেশের পুলিশ সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত তার একটা পরিসংখ্যান দেওয়া হলো... পাকিস্তান কোনো দেশের সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত দফতরের মধ্যে বিশ্বে পাকিস্তান পুলিশের অবস্থান প্রথম আর পুলিশ সদস্যদের দুর্নীতির হিসেবে এই বাহিনীর অবস্থান ১০ এ। একটি আন্তর্জাতিক ঘুষ বিরোধী সংগঠনের জরিপে উঠে এসেছে এ তথ্য। দেশটির বেশিরভাগ নাগরিকই মনে করেন পকিস্তান সরকারের সকল প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দেশটির পুলিশই সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত। পাকিস্তানের পুলিশ ঘুষ, চাঁদাবাজি, নির্যাতন এবং নিরপরাধ মানুষকে গ্রেফতার করার মতো দুর্নীতিতে লিপ্ত। রাশিয়া পুলিশ সদস্যদের দুর্নীতিতে বিশ্বে রাশিয়ান পুলিশের অবস্থান নবম। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশটির পুলিশ সদস্যদের মধ্যে বেড়েছে দুর্নীতির পরিমাণ। দেশটির পুলিশ সদস্যরা, নিরীহ মানুষকে গ্রেফতারে করে অর্থ আদায় এবং ঘুষ গ্রহণসহ নানা দুর্নীতিতে লিপ্ত। সুদান বিভিন্ন কারণে অন্যতম দুর্নীতিগ্রস্ত বাহিনী সুদানের পুলিশ। দুর্নীতির সূচকে সুদান পুলিশের অবস্থান ষষ্ঠ। ঘুষ ছাড়াও দেশটির পুলিশ সদস্যদের নির্যাতনের বিরুদ্ধে যারা অভিযোগ করেন তাদেরকে নির্যাতন করে দেশটির পুলিশ। আফগানিস্থান ঘুষ আফগানিস্তানের পুলিশের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনের প্রধান অন্তরায়। পুলিশের বিভিন্ন চেক পয়েন্টে সাধারণ মানুষের কাছে থেকে টাকা গ্রহণ ছাড়াও জেল থেকে টাকার বিনিময়ে আসাসিদের ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে এ দেশের পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে। সোমালিয়া যুদ্ধ বিধ্বস্ত সোমালিয়ার পুলিশ বিভিন্ন দুর্নীতিতে যুক্ত। অকার্যকর এবং অসাধুতার জন্য বিখ্যাত সোমালিয়ার পুলিশ। তবে কম বেতনই এর মূল কারণ বলে ধরে নেওয়া হয়। চুরি, চাঁদাবাজি, ঘুষ এবং হয়রানির মতো কাজে লিপ্ত দেশটির পুলিশ সদস্যরা। ইরাক অপহরণ, মুক্তিপন আদায় এবং ঘুষ গ্রহণসহ বিভিন্ন দুর্নীতিতে লিপ্ত ইরাকের পুলিশ সদস্যরা। সন্ত্রাস দমন এবং সাধারণের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ থাকার অভিযোগ দেশটির পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে। মিয়ানমার মিয়ানমারের পুলিশ সদস্যরা বিশ্বের দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ বাহিনীর মধ্যে চতুর্থ। অপরাধীদের বিরুদ্ধে তদন্তের জন্য টাকা গ্রহণ ছাড়াও সাধারণের কাছে থেকে টাকা নেওয়ার মতো অভিযোগ দেশটির পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে। কেনিয়া বিশ্বের সবচেয় দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কেনিয়ার অবস্থান তৃতীয়। ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশটির ৯২ শতাংশ মানুষই অভিযোগ করেছেন যে দেশটির পুলিশ সদস্যরা দুর্নীতিগ্রস্ত। মেক্সিকো দুর্নীতির দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা মেক্সিকোর পুলিশ সদস্যরা বিভিন্ন দুর্নীতিতে লিপ্ত। তদন্ত না করে সাধারণ মানুষকে জেলে ঢোকানোর জন্যও বিখ্যাত দেশটির পুলিশ সদস্যরা। হাইতি বিশ্বের সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত হাইতির পুলিশ বাহিনী। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিভিন্ন মানবাধিকার আইন ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে দেশটির পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে। অপহরণ, মাদক পাচার এবং পুলিশি নির্যাতনের মতো কাজে যুক্ত দেশটির পুলিশ সদস্যরা।

 

   আইন কানুন রক্ষার দায়িত্ব ছেড়ে যখন কোনো পুলিশ আইনের অপব্যবহার করে স্বার্থ উদ্ধারে লিপ্ত থাকে তখনই তিনি দুর্নীতিগ্রস্তের তালিকায় নাম লেখান। আর পুলিশের দুর্নীতির কারণে সমাজের যেমন ক্ষতি হয় তেমনি রাষ্ট্রীয় কাঠামোও দুর্বল হয়ে পড়ে। বিশ্বের সব দেশে যেমন ভালো পুলিশ সদস্য রয়েছেন তেমনি রয়েছেন দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের সংবাদমাধ্যম ওনডার্সলিস্ট এ শীর্ষ দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়েছে।



বিশ্বের যে ১০ দেশের পুলিশ সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত তার একটা পরিসংখ্যান দেওয়া হলো...
 

পাকিস্তান
কোনো দেশের সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত দফতরের মধ্যে বিশ্বে পাকিস্তান পুলিশের অবস্থান প্রথম আর পুলিশ সদস্যদের দুর্নীতির হিসেবে এই বাহিনীর অবস্থান ১০ এ। একটি আন্তর্জাতিক ঘুষ বিরোধী সংগঠনের জরিপে উঠে এসেছে এ তথ্য। দেশটির বেশিরভাগ নাগরিকই মনে করেন পকিস্তান সরকারের সকল প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দেশটির পুলিশই সবচেয়ে বেশি দুর্নীতিগ্রস্ত। পাকিস্তানের পুলিশ ঘুষ, চাঁদাবাজি, নির্যাতন এবং নিরপরাধ মানুষকে গ্রেফতার করার মতো দুর্নীতিতে লিপ্ত।
 

রাশিয়া
পুলিশ সদস্যদের দুর্নীতিতে বিশ্বে রাশিয়ান পুলিশের অবস্থান নবম। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে দেশটির পুলিশ সদস্যদের মধ্যে বেড়েছে দুর্নীতির পরিমাণ। দেশটির পুলিশ সদস্যরা, নিরীহ মানুষকে গ্রেফতারে করে অর্থ আদায় এবং ঘুষ গ্রহণসহ নানা দুর্নীতিতে লিপ্ত।
 

সুদান
বিভিন্ন কারণে অন্যতম দুর্নীতিগ্রস্ত বাহিনী সুদানের পুলিশ। দুর্নীতির সূচকে সুদান পুলিশের অবস্থান ষষ্ঠ। ঘুষ ছাড়াও দেশটির পুলিশ সদস্যদের নির্যাতনের বিরুদ্ধে যারা অভিযোগ করেন তাদেরকে নির্যাতন করে দেশটির পুলিশ।
 

আফগানিস্থান
ঘুষ আফগানিস্তানের পুলিশের দায়িত্ব সঠিকভাবে পালনের প্রধান অন্তরায়। পুলিশের বিভিন্ন চেক পয়েন্টে সাধারণ মানুষের কাছে থেকে টাকা গ্রহণ ছাড়াও জেল থেকে টাকার বিনিময়ে আসাসিদের ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে এ দেশের পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে।
 

সোমালিয়া
যুদ্ধ বিধ্বস্ত সোমালিয়ার পুলিশ বিভিন্ন দুর্নীতিতে যুক্ত। অকার্যকর এবং অসাধুতার জন্য বিখ্যাত সোমালিয়ার পুলিশ। তবে কম বেতনই এর মূল কারণ বলে ধরে নেওয়া হয়। চুরি, চাঁদাবাজি, ঘুষ এবং হয়রানির মতো কাজে লিপ্ত দেশটির পুলিশ সদস্যরা।
 

ইরাক
অপহরণ, মুক্তিপন আদায় এবং ঘুষ গ্রহণসহ বিভিন্ন দুর্নীতিতে লিপ্ত ইরাকের পুলিশ সদস্যরা। সন্ত্রাস দমন এবং সাধারণের নিরাপত্তা দিতে ব্যর্থ থাকার অভিযোগ দেশটির পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে।
 

মিয়ানমার
মিয়ানমারের পুলিশ সদস্যরা বিশ্বের দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ বাহিনীর মধ্যে চতুর্থ। অপরাধীদের বিরুদ্ধে তদন্তের জন্য টাকা গ্রহণ ছাড়াও সাধারণের কাছে থেকে টাকা নেওয়ার মতো অভিযোগ দেশটির পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে।
 

কেনিয়া
বিশ্বের সবচেয় দুর্নীতিগ্রস্ত পুলিশ সদস্যদের মধ্যে কেনিয়ার অবস্থান তৃতীয়। ট্রান্সপারেন্সি ইন্টারন্যাশনালের এক প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশটির ৯২ শতাংশ মানুষই অভিযোগ করেছেন যে দেশটির পুলিশ সদস্যরা দুর্নীতিগ্রস্ত।
 

মেক্সিকো
দুর্নীতির দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা মেক্সিকোর পুলিশ সদস্যরা বিভিন্ন দুর্নীতিতে লিপ্ত। তদন্ত না করে সাধারণ মানুষকে জেলে ঢোকানোর জন্যও বিখ্যাত দেশটির পুলিশ সদস্যরা।
 

হাইতি
বিশ্বের সবচেয়ে দুর্নীতিগ্রস্ত হাইতির পুলিশ বাহিনী। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিভিন্ন মানবাধিকার আইন ভঙ্গের অভিযোগ উঠেছে দেশটির পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে। অপহরণ, মাদক পাচার এবং পুলিশি নির্যাতনের মতো কাজে যুক্ত দেশটির পুলিশ সদস্যরা।

Post A Comment: