ঢাকা শহরের মামুগিরি দেখাতে আসছেন লোকসংগীত ধারার জনপ্রিয় গায়ক কুদ্দুস বয়াতি! ‘আসো মামা হে’ শিরোনামের একটি গান নিয়ে ফিরছেন তিনি। এতে বাউল ও হিপহপের ফিউশন করেছেন প্রীতম হাসান। তারা দু’জন মিলে গেয়েছেন গানটি। ‘আসো মামা হে’ গানের সুর ও সংগীত পরিচালনা প্রসঙ্গে প্রীতম হাসান ভিন্ন খবর কে বলেন, ‘বাউল গানের সঙ্গে ঠিকঠাক ফিউশন করলে বাউল শিল্পীদের গায়কী যে কতোটা শক্তিশালী হতে পারে সেটা বোঝা যেতে পারে এই গানে। এক বছর সময় নিয়ে গানটা করেছি।’ প্রীতম আরও বললেন, ‘আমার মূল লক্ষ্য ছিলো ফেসবুক জেনারেশনের সঙ্গে কুদ্দুস বয়াতিকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া। তার মতো একজন কিংবদন্তিকে নিয়ে কাজ করতে পেরে আমি আনন্দিত।’ গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন তানিম রহমান অংশু। পুরান ঢাকা ও তেজগাঁওয়ে এর দৃশ্যায়ন হয়েছে। আগামী ৯ এপ্রিল রাত ৯টায় গানচিল মিউজিকের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে এটি উন্মুক্ত হবে। গানটির কথা লিখেছেন সোমেশ্বর অলি। ১০ বছর বয়স থেকে লোকগান ও পালাগান করছেন কুদ্দুস বয়াতি। প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের হাত ধরে সংগীত ও বিনোদন অঙ্গনে পরিচিতি পান তিনি। হুমায়ূন আহমেদের নাটকে তার গাওয়া ‘এই দিন দিন নয় আরও দিন আছে’ তুমুল জনপ্রিয়তা পায়। টিভি, রেডিও, চলচ্চিত্রসহ দেশে-বিদেশে অসংখ্য অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেছেন তিনি।
 

   ঢাকা শহরের মামুগিরি দেখাতে আসছেন লোকসংগীত ধারার জনপ্রিয় গায়ক কুদ্দুস বয়াতি! ‘আসো মামা হে’ শিরোনামের একটি গান নিয়ে ফিরছেন তিনি। এতে বাউল ও হিপহপের ফিউশন করেছেন প্রীতম হাসান। তারা দু’জন মিলে গেয়েছেন গানটি।
‘আসো মামা হে’ গানের সুর ও সংগীত পরিচালনা প্রসঙ্গে প্রীতম হাসান ভিন্ন খবর কে বলেন, ‘বাউল গানের সঙ্গে ঠিকঠাক ফিউশন করলে বাউল শিল্পীদের গায়কী যে কতোটা শক্তিশালী হতে পারে সেটা বোঝা যেতে পারে এই গানে। এক বছর সময় নিয়ে গানটা করেছি।’

প্রীতম আরও বললেন, ‘আমার মূল লক্ষ্য ছিলো ফেসবুক জেনারেশনের সঙ্গে কুদ্দুস বয়াতিকে পরিচয় করিয়ে দেওয়া। তার মতো একজন কিংবদন্তিকে নিয়ে কাজ করতে পেরে আমি আনন্দিত।’

গানটির ভিডিও নির্মাণ করেছেন তানিম রহমান অংশু। পুরান ঢাকা ও তেজগাঁওয়ে এর দৃশ্যায়ন হয়েছে। আগামী ৯ এপ্রিল রাত ৯টায় গানচিল মিউজিকের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে এটি উন্মুক্ত হবে। গানটির কথা লিখেছেন সোমেশ্বর অলি।

১০ বছর বয়স থেকে লোকগান ও পালাগান করছেন কুদ্দুস বয়াতি। প্রয়াত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের হাত ধরে সংগীত ও বিনোদন অঙ্গনে পরিচিতি পান তিনি। হুমায়ূন আহমেদের নাটকে তার গাওয়া ‘এই দিন দিন নয় আরও দিন আছে’ তুমুল জনপ্রিয়তা পায়। টিভি, রেডিও, চলচ্চিত্রসহ দেশে-বিদেশে অসংখ্য অনুষ্ঠানে সংগীত পরিবেশন করেছেন তিনি।

Post A Comment: