আকর্ষণীয় ১০টি ফিচার যা থাকছে আসন্ন স্যামসাং এস৭ -এ।

আকর্ষণীয় ১০টি ফিচার যা থাকছে আসন্ন স্যামসাং এস৭ -এ।
আকর্ষণীয় ১০টি ফিচার যা থাকছে আসন্ন স্যামসাং এস৭ -এ।

গতবারের মতো এবারও মোবাইল ওয়ার্ল্ড কংগ্রেসে গ্যালাক্সি সিরিজের পরবর্তী স্মার্টফোন গ্যালাক্সি এস৭ বের করল স্যামসাং। নতুন ফোনটিতে পূর্বেকার ফ্ল্যাগশিপের মতোই একই স্ক্রিন সাইজ এবং রেজ্যুলেশন বহাল রাখা হয়েছে। তবে অনেক কিছুতেই এসেছে পরিবর্তন। এখানে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এর নতুন ১০টি ফিচার উল্লেখ করা হলো:

অলওয়েজ অন ডিসপ্লে

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এবং এস৬ এ কিউএইচডি রেজ্যুলেশনসহ ৫.১ ইঞ্চি ডিসপ্লে থাকলেও নতুন ফোনটিতে ‘অলওয়েজ অন ডিসপ্লে’ নামে নতুন একটি ফিচার যুক্ত হয়েছে। নতুন এই ফিচারটির মাধ্যমে স্মার্টফোন অন না করে বা স্টান্ডবাই মোডে রেখেই নোটিফিকেশন চেক, সময় কিঙবা ক্যালেন্ডার দেখতে পাবেন ব্যবহারকারীরা।

পানি এবং ধূলিকণা নিরোধক বডি

প্রিমিয়াম হ্যান্ডসেট তৈরির লক্ষ্যে গত বছর স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬-এ পানি ও ধূলিকণা নিরোধক ফিচার যুক্ত করেছিল স্যামসাং। তবে গ্যালাক্সি এস৭ এ ফিচারটির অভূতপূর্ব উন্নতি হয়েছে। নতুন ফোনটি পানির অন্তত ১.৫ মিটার নিচ অব্দি ৩০ মিনিট থাকতে সক্ষম।

বড় ব্যাটারী

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এ আছে ৩,০০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারী। পূর্বেকার গ্যালাক্সি এস৬ এর ২,৫৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারীর থেকে যা অনেকটাই বড় এবং শক্তিশালী। বড় ব্যাটারী ফোনকে দীর্ঘক্ষণ শক্তি জোগাবে বলে প্রত্যাশা স্যামসাংয়ের। তবে ব্যাটারীটি অপসারণযোগ্য নয়।

মাইক্রোএসডি কার্ডের প্রত্যাবর্তন

গত বছর স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৬ এ মাইক্রোএসডি কার্ডের ব্যবহার বন্ধ করে দেয় স্যামসাং। তবে ২০১৬ সালের নতুন গ্যালাক্সী ফোনটিতে আবারও মাইক্রোএসডি স্লট ফিরিয়ে নিয়ে এসেছে স্যামসাং। ব্যবহারকারীরা  মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে ২০০জিবি পর‌্যন্ত স্টোরেজ ব্যবহার করতে পারবেন।

অ্যান্ড্রয়েড মার্শম্যালো অনবোর্ড

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এ যে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের নতুন সংস্করণ মার্শম্যালো আসবে তা না বললেও চলে। অপারেটিং সিস্টেমটির কল্যাণে ভালো ব্যাটারী লাইফ, ডিপার অ্যাপ পারমিশন, গুগল নাউ অন ট্যাপ ফিচার যুক্ত হয়েছে গ্যালাক্সি এস৭ এ।

নতুন প্রসেসর

২০১৫ সালের কোন ফ্ল্যাগশিপ স্মার্টফোনেই কোয়ালকম চিপসেট ব্যবহার করেনি স্যামসাং। তবে এ বছর নিজস্ব অক্টা-কোর এক্সিনোজ ৮৮৯০ চিপসেটসহ কোয়াড-কোর স্ন্যাপড্রাগন ৮২০ ব্যবহার করছে প্রতিষ্ঠানটি। তবে কোন মডেলটি কোথায় বিক্রি হবে তা এখনও প্রকাশ করেনি স্যামসাং। চিপসেটটিতে লিকুইড কুলিং ফিচার যুক্ত করা হয়েছে যাতে স্মার্টফোন অতিরিক্ত গরম না হয়।

অধিক র‌্যাম

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এ আছে ৪জিবি এলপিডিডিআর৪ র‌্যাম। আর পূর্বেকার গ্যালাক্সি এস৬ এ ৩জিবি র‌্যাম ছিল।

উন্নত ক্যামেরা

স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭ এ ক্যামেরায় আনা হয়েছে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন। সবচেয়ে বড় পরিবর্তন হলো, ক্যামেরায় নিম্মমানের ইমেজ রেজ্যুলেশন এবং উচ্চ মানের অ্যাপাচার সাইজ। ব্যবহারকারীরা ডুয়াল-পিক্সেল প্রযুক্তিযুক্ত ১২ মেগাপিক্সেল রিয়ার ক্যামেরা পাবেন যা নিম্মমানের রেজ্যুলেশনেও ভালো ছবি তুলতে সক্ষম।  

দ্রুতগতির ৪জি স্পিড

ক্যাট এলটিই স্পিড সমর্থণ করে স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৭। এটি ডাউনলোডের স্পিড ৪৫০ এমবিপিএস এবং আপলোডের স্পিড ৫০ এমবিপিএস করতে সক্ষম। এটি গ্যালাক্সি এস৬’র ক্যাট ৬ ৩০০ এমবিপিএস ডাউনলোড স্পিডের থেকে দ্রুততর।

Post A Comment: