ইতিহাসে প্রথম তিনজন তৃতীয় লিঙ্কের নারী মডেল হয়েছে ভারতে!!!



ইতিহাসে প্রথম তিনজন তৃতীয় লিঙ্কের নারী মডেল হয়েছে ভারতে!!!
ইতিহাসে প্রথম তিনজন তৃতীয় লিঙ্কের নারী মডেল হয়েছে ভারতে!!!

মডেলিং জগতে পা রাখলেন ভারতের তৃতীয় লিঙ্গের তিন মডেল। তৃতীয় লিঙ্গদের এনজিও মিত্র ট্রাস্ট এবং রুদ্রাণী ছেত্রী চৌহানের উদ্যোগে কাজ শুরু করতে চলেছে ভারতের প্রথম ট্রান্সজেন্ডার মডেল এজেন্সি। প্রথম মডেল কারা হবেন, সেই নিয়ে ছিল জল্পনা থাকলেও শেষ পর্যন্ত ৩ জনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।


তৃতীয় লিঙ্গের ওই তিনি মডেল হলেন, স্নেহা, শ্রী এবং নীহারিকা। প্রথম পর্বের বাছাই হয় ৭ ফেব্রুয়ারি। ৩০ জন ছিলেন এ তালিকায়। দেশটির সেলিব্রিটি স্টাইলিস্ট ঋষি রাজ, ফ্যাশন ডিজাইনার নিদা মাহমুদ, কিং ফিশার মডেল হান্ট ১৬ জয়ী ঐশ্বর্য সুস্মিতা এবং রুদ্রাণী ছেত্রী চৌহান বিচারক ছিলেন। বিচারকরা বেছে নিয়েছেন ৩ জন মডেলকে। যারা হতে চলেছেন দেশটির প্রথম ট্রান্সজেন্ডার মডেল। শুধু মডেলিং নয়, বনি কপূরের পরবর্তী ছবিতে অভিনয়েরও সুযোগ পেয়েছেন এদের দুজন।

জয়পুরে জন্ম নেওয়া স্নেহার বয়স ২২। পরিবারের সদস্যরা মেনে নিতে পারেননি স্নেহার পরিবর্তন। মানসিক চাপে স্কুল ছাড়তে হয়। ১৮ বছর বয়সে দিল্লি চলে যান। কাজের ক্ষেত্রে সুযোগের অভাবে যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করতে বাধ্য হন। মডেল হওয়ার আকাঙ্ক্ষা ছিল প্রথম থেকেই। এবার সেই স্বপ্নপূরণ হতে চলেছে স্নেহার।

দিল্লিতে জন্ম নেওয়া শ্রীর বয়স ২৩। বহুমুখী প্রতিভার শ্রী একজন নৃত্যশিল্পী। নিজেই নিজের পোশাক ডিজাইন করেন। অনেক ছোট বয়সেই পরিবার তাকে বর্জন করে। একবার একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে চরম অপমানিত হন। অনেক কষ্টের মধ্যেও অ্যাম্বিশনটা আঁকড়ে থেকেছেন।

২৩ বছর বয়সী নীহারিকার বাড়িও দিল্লিতে। অনেক অল্প বয়স থেকেই যৌনকর্মী হিসেবে কাজ করতে বাধ্য হন নীহারিকা। নিজের শারীরিক পরিবর্তনটা মানতে পারেননি প্রথম দিকে। ১৭ বছর বয়সে আত্মহত্যা করার চেষ্টাও করেন। এখন কাজ করেন নাইটক্লাবে। 

Post A Comment: