মার্কিন সাইবার নিরাপত্তা খাতে ১৯০০ কোটি ডলারের তহবিল প্রস্তাব।

 ২০১৭ অর্থ বছরের জন্য ১ হাজার ৯’শ কোটি ডলারের সাইবার নিরাপত্তা তহবিলের প্রস্তাব করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। যা আগের বছরের এক-তৃতীয়াংশের বেশি।



মার্কিন সাইবার নিরাপত্তা খাতে ১৯০০ কোটি ডলারের তহবিল প্রস্তাব।
 সাইবার নিরাপত্তা ইসু সাম্প্রতিক সময়ে মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ওবামা প্রশাসনের জন্য। ২০১৬ অর্থবছরে এই খাতে ১ হাজার ৪শ’ কোটি মার্কিন ডলার খরচ করেছিল মার্কিন সরকার। আর এবার এক ধাপে এবার সাইবার নিরাপত্তা খাতে খরচের জন্য তহবিলের পরিমাণ আরও ৫শ’ কোটি মার্কিন ডলার বাড়াতে চাইছেন ওবামা। 

 ওবামা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এই খবর জানিয়েছে রয়টার্স। তবে রিপাবলিকান পার্টি নিয়ন্ত্রিত মার্কিন কংগ্রেস ওবামার প্রস্তাবে সমর্থন দেবে কি না সে বিষয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে সংবাদমাধ্যমটি। 

 প্রেসিডেন্ট ওবামার শেষ বছরে এসে সাইবার নিরাপত্তা ইসু যে মার্কিন হর্তাকর্তাদের কাছে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব পাচ্ছে, সেটা পরিষ্কার বলে মন্তব্য করেছে রয়টার্স। টানা কয়েকটি বড় বড় সাইবার হামলার শিকার হয়েছে মার্কিন সরকার ও দেশটির বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। 

  ওই তালিকায় আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডিপার্টমেন্ট অফ জাস্টিস থেকে শুরু করে চলচিত্র প্রযোজক সনি পিকচার্সও। সাইবার নিরাপত্তা জোরদার করতে প্রেসিডেন্ট ওবামার প্রস্তাবটির নিয়ে হোয়াইট হাউজ মঙ্গলবার আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেবে। আগামী এক দশকের জন্য সাইবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করতে চাইছে মার্কিন সরকার। 

  প্রয়োজনে ‘ফেডারেল চিফ ইনফর্মেশন সিকিউরিটি অফিসার’-এর নতুন পদও তৈরি করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন ওবামা প্রশাসনের কর্মকর্তারা। মঙ্গলবার ‘ফেডারেল প্রাইভেসি কাউন্সিল’ তৈরির জন্য নির্বাহী আদেশে স্বাক্ষর করার কথা রয়েছে মার্কিন রাষ্ট্রপতির। ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত ডেটা কীভাবে সংগ্রহ এবং সংরক্ষণ করা হবে সে বিষয়ে নীতি নির্ধারকের কাজ করবে ওই কাউন্সিল।

Post A Comment: