দুই গ্রহ দিয়ে দ্বারা সৃষ্টি আমাদের এই পৃথিবী।



দুই গ্রহ দিয়ে দ্বারা সৃষ্টি আমাদের এই পৃথিবী।


দুটি গ্রহের মধ্যে প্রচণ্ড সংঘর্ষের মধ্য দিয়ে তৈরি হয়েছে পৃথিবী। আর এটি ঘটেছে ৪৫০ কোটি বছর আগে। যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকরা এই দাবি করেছেন। এর ফলে পৃথিবীর সৃষ্টি নিয়ে বেশ চাঞ্চল্য দেখা গেছে।
 
যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া, লস অ্যাঞ্জেলেস বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষক পৃথিবীর সৃষ্টি নিয়ে গবেষণা করেন। এই গবেষণায় অর্থায়ন করেছে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা ও ইউরোপের গবেষণা সংস্থা এসিসিআরইটিই। পৃথিবীর তৈরি হওয়া সংক্রান্ত গবেষণা নিবন্ধটি প্রকাশ করেছে বিজ্ঞান সাময়িকী ‘সায়েন্স’।
 
গবেষকরা বলেন, ৪৫০ কোটি বছর আগে থিয়া নামক একটি গ্রহের সঙ্গে তৎকালীন ১০ কোটি বছর বয়স্ক পৃথিবীর প্রচণ্ড সংঘর্ষ হয়। থিয়ার আকৃতি ছিল পৃথিবী বা মঙ্গলের সমান।
 
থিয়া আর পৃথিবীর সংঘর্ষের তথ্য জ্যোতির্বিদদের আগে থেকেই জানা। এখানে নতুন বিষয় হলো পৃথিবী ও থিয়ার মধ্যকার সংঘর্ষ পূর্ণ ছিল। এর আগে ধারণা করা হতো, পাশে কোনো রকম সংঘর্ষ ঘটেছিল দুই গ্রহের। বর্তমানে গবেষকরা বলছেন, সংঘর্ষের পর পৃথিবী ও থিয়া একসঙ্গে যুক্ত হয়ে সৃষ্টি হয় পৃথিবী। আর একটি অংশ ভেঙে গিয়ে সৃষ্টি হয় পৃথিবীর উপগ্রহ চাঁদ।

গবেষকরা চাঁদের মাটির সঙ্গে অ্যারিজোনা ও হাওয়াইয়ের মাটি নিয়ে গবেষণা করেন। দুই মাটির মধ্যে অক্সিজেন আইসোটোপসহ বেশ মিল দেখা যায়। এ থেকে গবেষকরা মনে করেন, দুটি মাটিতে একই ধরনের রাসায়নিক বৈশিষ্ট প্রদর্শন করে। গবেষকদের মতে, থিয়ার মাটি পৃথিবী ও চাঁদ দুটোতেই মিশেছে।
গবেষকরা আরো বলেন, থিয়ার সঙ্গে সংঘর্ষে তৎকালীন পৃথিবীতে থাকা সব পানি উবে যেতে পারে। পরে অবশ্য পানিসমৃদ্ধ নক্ষত্রের আঘাতে পৃথিবীতে পানি আসার কথা।

Post A Comment: