ব্যাটারি সংরক্ষণে ব্যবহার করুন কালো রঙের ওয়ালপেপার

আমরা অনেকেই জানি যে স্মার্টফোনে যে সকল এলিমেন্ট থাকে বা স্মার্টফোন যে সকল এলিমেন্ট নিয়ে গঠিত সেগুলোর মধ্যে সবচাইতে পাওয়ার-হাংরি এলিমেন্ট হচ্ছে এর ডিসপ্লে ইউনিট, তবে অনেকেই এটা জানে না যে তাদের পছন্দের ওয়ালপেপার ডিসপ্লে ইউনিটের এই ব্যাটারির ব্যবহার অনেকাংশেই কমিয়ে দিতে পারে এমনকি পরিবর্তনটা আপনি সহজেই লক্ষ্য করতে পারবেন।

ব্যাটারি সংরক্ষণে ব্যবহার করুন কালো রঙের ওয়ালপেপার

 আপনি যদি আপনার স্মার্টফোনে একটি সলিড কালো রঙের ওয়ালপেপার ব্যবহার করেন বা এমন কোন ব্যাকগ্রাউন্ড ব্যবহার করেন যেখানে কালো রঙ্গের আধিক্য বেশি তবে সেক্ষেত্রে আপনার স্মার্টফোনের ব্যাটারি কিছুটা হলেও কম খরচ হবে। তবে কিছু ক্ষেত্রে স্ক্রিনের ম্যাটারিয়ালের উপরেও বিষয়টি নির্ভর করে থাকে। 
বর্তমানে প্রযুক্তি বাজারের বেশিরভাগ স্মার্টফোনের ডিসপ্লে ইউনিটেই ব্যবহার করা হচ্ছে অ্যামোলেড বা এলসিডি প্যানেল। আমি এই ডিসপ্লে প্যানেলগুলোর প্রকারভেদ সম্পর্কে কথা বলতে চাইছিনা কেননা এতে আজকের টপিক থেকে আমাদের বেশ খানিকটা সরে যেতে হবে, বরং ভিন্ন ভিন্ন ধরণের ডিসপ্লে প্যানেল নিয়ে আমি অন্য কোন দিন একটি তুলনামূলক পোস্ট লেখার চেষ্টা করব। আজকে চলুন জেনে নেয়া যাক কেন কালো ওয়ালপেপার কিছুটা হলেও ব্যাটারি সংরক্ষণ করে থাকে। তবে এর আগে এলসিডি এবং অ্যামোলেড সম্পর্কে কিছু জানা যাক। 

এলসিডি 

এলসিডি'র পূর্ণরূপ সম্ভবত সবারই জানা আছে। যাদের জানা নেই তাদের জন্য লিখে দিচ্ছি, এলসিডি টার্মটির পূর্নরূপ হচ্ছে 'লিকুইড ক্রিস্ট্যাল ডিসপ্লে' এবং স্মার্টফোনের এই টেকনোলজি এবং টেলিভিশন বা মনিটরের টেকনোলজি কিন্তু একদম একই রকম। লিকুইড ক্রিস্ট্যাল ডিসপ্লে মূলত এমন ধরণের ক্রিস্ট্যাল যা নিজে থেকে আলো নির্গত করেনা তবে তাদের পেছনে থাকা কোন সোর্স থেকে লাইট বা আলো ট্র্যান্সমিট করে থাকে। 
সহজ ভাবে বললে আপনি যদি আপনার স্মার্টফোন বা ট্যাবলেটের স্ক্রিনে কালো রঙের দিকে তাকিয়ে থাকেন তবে এই কালো হচ্ছে পেছনে থাকা ব্ল্যাক লিট। পাশাপাশি মনে রাখবেন, একটি এলসিডি প্যানেল কখনোই 'ট্রু ব্ল্যাক' প্রদর্শন করতে সক্ষম নয়। বর্তমানের নেক্সাস ৫, এলজি জি৩ এবং এক্সপেরিয়া জেড৩ ডিভাইসগুলোতে এধরণের প্যানেল দেখতে পাবেন আপনারা। 
এলসিডি প্যানেলগুলো বেশ পাওয়ার হাংরি হয়ে থাকে কেননা ব্যবহারের সময় এর প্রতিটি পিক্সেলকে কাজ করতে হচ্ছে। 

অ্যামোলেড এবং ওএলইডি 

অ্যামোলেড এর পূর্ণরূপ হচ্ছে অ্যাকটিভ-ম্যাট্রিক্স লাইট-এমিটিং ডায়োড এবং এই প্রযুক্তিটিও আপনার টেলিভিশন প্রযুক্তিতে দেখে থাকেন তবে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই এটি স্মার্টফোনেই ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ওএলইডি ডিসপ্লেও একই ভাবে কাজ করে তবে এক্ষেত্রে কোন অ্যাকটিভ ম্যাট্রিক্স থাকেনা। 
স্যামসাং সাধারণত অ্যামোলেড ডিসপ্লে ব্যবহার করে থাকে যেমন - গ্যালাক্সি এস৫ ,গ্যালাক্সি নোট ৪, গ্যালাক্সি এস৬ এবং গ্যালাক্সি নোট ৫ এই সবগুলো স্মার্টফোনেই ব্যবহার করা হয়েছে অ্যামোলেড ডিসপ্লে। এছাড়াও এলজি জি ফ্লেক্স ২ ডিভাইসটিতে রয়েছে প্ল্যাস্টিক ওএলইডি এবং নেক্সাস ৬ ডিভাইসটিতে রয়েছে অ্যামোলেড স্ক্রিন। 
এই প্রযুক্তির প্যানেলগুলো তৈরি করা হয়েছে থাকে কিছু অর্গানিক ম্যাটেরিয়াল দিয়ে যা আলো উৎপাদন করতে সক্ষম তবে যখন এর মধ্যে দিয়ে বিদ্যুৎ প্রবাহিত হয়। আর ব্যাটারির লাইফের ক্ষেত্রে অ্যামোলেড ডিসপ্লে কিছুটা হলেও ভালো কেননা এতে স্ক্রিনে কাজ করার সময় সবগুলো পিক্সেল একসাথে কাজ করেনা আর এই প্যানেলে কালো রঙের দেখা পাওয়াও সহজ (ট্রু ব্ল্যাক) কেননা এর পেছনে কোন ব্যাক লাইটিং সোর্সও নেই। 

ব্যাটারি লাইফ - অ্যামোলেড বনাম এলসিডি 

আপনার স্মার্টফোনে যদি অ্যামোলেড ডিসপ্লে প্রযুক্তি থেকে থাকে তবে আপনি ইচ্ছে করলেই কালো রঙের ওয়ালপেপার বা কালো থিম ব্যবহার করে কিছুটা হলেও ব্যাটারি সংরক্ষণ করতে পারেন। 
এক্সডিএ-এর একটি পরীক্ষায় দেখা যায় অ্যামোলেড ডিসপ্লেতে কালো রঙের ওয়ালপেপার ব্যবহার করে ২০ শতাংশ ব্রাইটনেসে ঘন্টায় ৮ শতাংশ ব্যাটারি সংরক্ষণ করা যায় এবং শ্ততভাগ ব্রাইটনেসে ৬ শতাংশ ব্যাটারি সংরক্ষণ করা যায়। 
তাহলে বুঝতেই পারছেন যে আপনি যদি একটি অ্যামোলেড ডিসপ্লে সমৃদ্ধ স্মার্টফোনের মালিক হয়ে থাকেন তবে আপনি বেশ খানিকটা ব্যাটারির চার্জ সংরক্ষণ করতে পারবেন শুধুমাত্র কালো রঙের ওয়ালপেপার ব্যবহার করে। 

এলসিডি 

তাহলে কি এলসিডি প্যানেলে কালো ওয়ালপেপার ব্যবহারে ব্যাটারি সংরক্ষণ করা যাবেনা? না! কেননা আমি আগেই ব্যখ্যা করেছি যে এই প্রযুক্তিটি নির্ভর করে থাকে ব্যাক-লাইটিং এর উপরে আর তাই আমাদের এক্ষেত্রে কিছুই করার নেই।

শেষ কথা - আশা করি ছোট্ট এই পোস্টটি আপনার ভালো লেগেছে। আপনি ইচ্ছে করলেই অ্যামোলেড স্ক্রিন বিশিষ্ট স্মার্টফোনে অন্যান্য অ্যাপলিকেশনের যতটা সম্ভব থিম কালো করেও ব্যবহার করতে পারেন। মূল কথা হচ্ছে, যতটা সম্ভব কালো রঙের ব্যবহার। কেননা কালোই পারে একমাত্র আপনার স্মার্টফোনটির ব্যাটারিকে সংরক্ষণ করতে। 

Post A Comment: