বহুদিন পর ‘দিলওয়ালে’ দিয়ে পর্দায় ফিরেছে শাহরুখ-কাজলের জুটি। একটু দেরিতে হলেও ১০০ কোটির ক্লাবে ঠিকই জায়গা করে নিয়েছে বলিউড বাদশাহর ‘দিলওয়ালে’। কিন্তু ‘দিলওয়ালে’ ও ঢাকাই ছবি ‘ভালোবাসার ঘর’-র সাদৃশ্য নিয়ে তুমুল আলোচনার ঝড় বইছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে।



বাংলা সিনেমার দর্শকরা এ নিয়ে ফেসবুকে তর্কের মাত্রা বাড়িয়েই চলেছে। গল্প অনুযায়ী দেখা যায় ২০ বছর আগের বাংলা সিনেমা ‘ভালোবাসার ঘর’-র সাথে ব্যপক মিল রয়েছে আলোচিত ছবি ‘দিলওয়ালে’-র।


‘ভালোবাসার ঘর’ ছবিতে জুটি বেঁধেছিলেন জসিম ও শাবানা। জসিম অপরাধ জগতে কাজ করে। হঠাৎ শাবানার প্রেমে পরে ভালো হয়ে যায়। কিন্তু শাবানার বাবা ভুল বুঝিয়ে দু’জনকে আলাদা করে দেয়।


এরপর দুজন কসম নেয় জীবনে কোনোদিন বিয়ে না করার। কাকতালীয় ভাবে কয়েক বছর পর জসিমের ছোট ভাই অমিত হাসান আর শাবানার ছোটবোন পপি একে অপরের প্রেমে পড়ে। শাবানার সাথে অমিত হাসানের দেখা হলে শর্ত দেয় পপিকে পেতে হলে জসিমকে ছেড়ে ঘরজামাই হয়ে শাবানার বাড়িতেই থাকতে হবে তাঁকে।


অমিত হাসান সাবানার প্রস্তাব সহজে মেনে নেয় না। কারণ অনুসন্ধান করতে গিয়ে দেখা যায় কেঁচো খুঁড়তে গিয়ে সাপ বেরিয়ে গেছে। অর্থাৎ শাবানা যে অমিত হাসানের বড় ভাইয়ের সাথে ইটিশ পিটিশ করত সেটা সে জেনে যায়। তাই পপির সাথে আলাপ আলোচনার মাধ্যমে তারা তাদের বড় ভাই-বোনদের মনে আবারো প্রেম জাগানোর প্ল্যান করে!

তাছাড়া বেচারারা আর করবেটাই বা কী? কারণ সমাজে একটা প্রচলিত নিয়ম আছে যে, বড় ভাইবোনের আগে ছোট ভাইবোনেরা বিয়ে করে ফেললে নানান জনের নানান কথা শুনতে হয়। হয়তো একারণেই পপি আর অমিত হাসান শাবানা আর জসিমের বিয়ে দিতে চায়। অতঃপর তারা তাদের প্ল্যানে সফলও হয়!


বহুল আলোচিত ‘দিলওয়ালে’ ছবিতেও ঢাকাই ছবি ‘ভালোবাসার ঘর’-র ঘটনার অনুরূপ দৃশ্য প্রতিফলিত হয়।‘দিলওয়ালে’ ছবিতে শুধু জসিমের জায়গায় শাহরুখ, শাবানার জায়গায় কাজল, অমিত হাসানের জায়গা বরুণ ধাওয়ান আর পপির জায়গায় কৃতি শ্যাননকে রিপ্লেস করে নিলেই হয়ে গেল নতুন যুগের ‘দিলওয়ালে’ ছবিটি!

Post A Comment: