জামাল ভূইয়া বাংলাদেশের মাঝমাঠের প্রাণভোমরা। গত ম্যাচে তার অনুপস্থিতি পুরো দলকেই ভুগিয়েছে। তবে মালদ্বীপের বিরুদ্ধে খেলছেন জামাল। ইনজুরি কাটিয়ে দলে ফিরে কেমন করতে পারেন তিনি! দলের প্রয়োজনে কেমন করে যুদ্ধের ময়দানে ঝাঁপিয়ে পড়তে পারেন জামাল তা বলে গেলেন। বললেন, মালদ্বীপের বিরুদ্ধে ম্যাচে অবশ্যই জয়ের জন্য খেলবে বাংলাদেশ। তিনি আশা করেন জয় নিয়েই মাঠ ছাড়বে দল। এমন আশা কোচ মারুফুল হকেরও।




কিন্তু বাস্তবতা গাইছে ভিন্ন সুর। সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে বাংলাদেশের পরাজয়ের সংখ্যা গুনতে গুনতে ভক্তরা এখন ক্লান্ত। একের পর এক পরাজয় তাদেরকে আশাহীন করে তুলেছে দিনেদিনে। মারূফুল হক অবশ্য রোগটা ধরতে পেরেছেন। তিনি বলেন, ‘দলের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে যে মানসিকতা গড়ে উঠেছে তা দূর করা কয়েক সপ্তাহের পরিশ্রমে সম্ভব নয়। এ দলে সবাই জানে ওষুধটা কী। কিন্তু কেউই তা প্রয়োগ করতে পারছে না। এর কারণ, দীর্ঘদিনের মানসিকতা তারা হঠাৎ করেই পরিবর্তন করতে পারছে না।’

বাংলাদেশের মানসিকতাটা কেমন এর বর্ণনা দিলেন মারূফ। ক্রাউড থেকে বল ওপেনে নিয়ে যাওয়ার অভ্যাসটা নেই মামুনুলদের। বরং ক্রাউডে প্রতিপক্ষই সুবিধা পায় বেশি। তাছাড়া গোল হজম করার পূর্ব পর্যন্তও দলের মধ্যে এক ধরণের বুনো উদ্যোম কাজ করে। কিন্তু গোল হজম করলেই দলটা ভেঙ্গে পরে হুড়মুড় করে। আত্মবিশ্বাস লেভেলটা সবসময়েই দলের মধ্যে আকাশ-জমিন উঠা-নামা করে। এসব রোগের সিম্পটনগুলো শিষ্যদের ভালোই শিখিয়েছেন কোচ মারূফুল হক। তাদের জানিয়েছেন এর প্রতিকারও। কিন্তু তাতেও কোনো কাজ হচ্ছে না। দীর্ঘদিনের অভ্যাস কয়েক সপ্তাহে যাওয়া সম্ভব নয় বলে মনে করেন তিনি।

প্রতিপক্ষ মালদ্বীপ। দলটা ভয়ঙ্কর। শিকার করলেন মারূফুল হক এবং জামাল ভুইয়া দুজনেই। কারণ, এ দলে আলি আশফাকের মতো দুর্দান্ত একজন ফুটবলার আছেন। তবে তারা কী জানেন, মালদ্বীপ কোচ বলে গেছেন বাংলাদেশের বিপক্ষে বেশ কয়েকটা পরিবর্তন আসছে। সম্ভবত আশফাককে তিনি মাঠেই নামাবেন না। অবশ্য এটা মালদ্বীপের কিউই কোচ রিকি হার্বার্টের একটা চালও হতে পারে। তিনি হয়তো বাংলাদেশকে অপ্রস্তুত অবস্থায় কঠিন অবস্থায় ফেলার আশা রাখেন। অবশ্য জামালরা এসব ভালোই বুঝতে পারছেন। এ কারণেই গতকালের পুরো বিকেল কাটালেন কঠোর অনুশীলনে। দলের আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনতে মারূফুল হক এবং মামুনুল দুজনেই প্রত্যেকের সঙ্গে আলাদাভাবে কথা বলেছেন। সবার মধ্যেই আফগানিস্তান ম্যাচের প্রসঙ্গটা ভুলে যাওয়ার একটা অদম্য ইচ্ছা কাজ করছে। দেখা যাক, বাংলাদেশ গত ম্যাচের শোকতে শক্তিতে পরিণত করে আজ জয়মুকুট ছিনিয়ে আনতে পারে কী না! আজ এমনকি ড্র করলেও গ্রুপ পর্ব থেকেই বাড়ির পথ ধরবে বাংলাদেশ। কারণ, মালদ্বীপ প্রথম ম্যাচে ভূটানকে হারিয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে।

Post A Comment: