মাথার অস্বাভাবিক ব্যথা সাধারনত মাইগ্রেন নামে পরিচিত৷ মাইগ্রেনের ব্যথা অনেক সময় প্রবল আকার ধারণ করতে পারে এবং এ থেকে বমি ও অসুস্থতা বোধও হতে পারে৷ তাই মাইগ্রেনের কারণ ও চিকিৎসা কিছু তথ্য রইল আপনাদের জন্য৷
মাইগ্রেনের মাথা ব্যথার উপসর্গ:
  • মাথার যেকোন একদিকে ব্যথা অনুভুত হওয়া৷
  • অল্প সময়ের জন্য বিষণ্ণতা, বিরক্তিভাব ও ক্ষুধামান্দ্য বোধ হতে পারে৷
  • প্রবল ব্যথা, বমি ভাব ও বমি৷
  • হাত বা পা অবশ হয়ে যাওয়া৷
  • অস্বস্হি, অলসভাব, ঘাড় শক্ত হয়ে যাওয়া ইত্যাদি মাইগ্রেনের খুব সাধারন লক্ষণ৷
  • দুর্বলতা, মনঃসংযোগের অভাব৷

মাইগ্রেনের মাথা ব্যথার কারণ:
  • মানসিক চিন্তা, অতিরিক্ত কাজের চাপ, ঘুমের ব্যঘাত, অবসাদ ইত্যাদি মাইগ্রেনের ব্যথার কারণ হতে হবে৷
  • মাইগ্রেনের ব্যথা বেশির ভাগ ক্ষেত্রে মহিলাদের মধ্যে দেখা যায়৷ মহিলাদের ক্ষেত্রে ইস্ট্রোজেন হরমোনের পরিমাণ বেড়ে বা কমে গেলে ধতুস্রাবের সময় মহিলাদের এই ব্যথা অনুভূত হয়৷
  • অনেকের ক্ষেত্রে রক্তচাপ সঠিক পরিমাণে না হলে মাইগ্রেনের ব্যথা হতে পারে৷ যদিও অনেকের ক্ষেত্রে মাইগ্রেন জিন থেকেও এই ব্যথা হতে পারে।

মাইগ্রেন প্রতিরোধের ঘরোয়া প্রতিকার:
  • তাজা আঙুরের রস খেলে মাইগ্রেনের ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়৷ তবে আঙুরের রসে জল মেশাবেন না৷
  • একটা ভেজা তোয়ালে ৫-৭ মিনিট ফ্রিজে রেখে তারপর ওই ঠান্ডা তোয়ালেকে মাথায় ও চোখের উপর কিছুক্ষণ রাখলে ব্যথা থেকে আরাম পাওয়া যায়৷
  • একটা অন্ধকার, শান্ত ঘরে শুয়ে যদি মাথায় মাসাজ করানো যায় তবেও মাইগ্রেনের ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়া যায়৷
  • চন্দনকাঠের গুঁড়োর সঙ্গে সামান্য পানি মিশিয়ে একটি পেস্ট তৈরি করুন৷ পেস্টটি কপালে মেখে নিন৷ শুকিয়ে গেলে তুলে ফেলুন৷ এতেও মাইগ্রেনের ব্যথা থেকে আরাম মিলবে৷

Post A Comment: