ছবি: সংগৃহীত
ছবি: সংগৃহীত
Decrease font Enlarge font
ঢাকা: প্লেন চলাচলে ট্র্যাকিংয়ের ক্ষেত্রে রাডার নির্ভরতার দিন ফুরিয়ে এসেছে। এখন থেকে স্যাটেলাইট থেকে ট্র্যাক করা হবে। ক্রমে এ ব্যবস্থার উন্নতি সাধন করে পুরোমাত্রায় স্যাটেলাইট নির্ভর প্লেন যোগযোগ ব্যবস্থাও গড়ে তোলা হবে।

মালয়েশিয়ান এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট এমএইচ-৩৭০’র নিখোঁজ হওয়ার প্রেক্ষিতেই এ সিদ্ধান্তে আসলো জাতিসংঘ। ২০১৪ সালের ৮ মার্চ মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে বেইজিং যাওয়ার পথে ২৩৯ আরোহী নিয়ে নিখোঁজ হয় বোয়িং-৭৭৭-২০০ইআর সিরিজের প্লেনটি।

বুধবার (১১ নভেম্বর) জেনেভায় জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক টেলিযোগাযোগ ইউনিয়ন (আইটিইউ) আয়োজিত বিশ্ব রেডিওযোগাযোগ কনফারেন্সে (ডব্লিউআরসি) এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়। সম্মেলনে ১৬০টিরও বেশি দেশের প্রতিনিধিরা যোগ দেন।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্লেনের ভেতরে এক ধরনের বিশেষ যন্ত্র বসানো থাকবে, যা রেডিও তরঙ্গের মাধ্যমে ক্রমাগত স্যাটেলাইটে সংকেত পাঠাতে থাকবে। সেই সঙ্গে স্যাটেলাইটও স্বয়ংক্রিয়ভাবে এই তরঙ্গের মাধ্যমে প্লেনের অবস্থান রেকর্ড করতে থাকবে। এ সিস্টেমকে ‘অটোমেটিক ডিপেন্ডেন্ট সার্ভেইলেন্স-ব্রডকাস্ট (এডিএস-বি)’ বলা হয়ে থাকে। এতোদিন প্লেনগুলো নিকটবর্তী অন্য প্লেন বা গ্রাউন্ড স্টেশনকে এ ধরনের তরঙ্গের মাধ্যমে নিজের অবস্থান নিশ্চিত ও যোগাযোগ করতো।

আইটিইউ’র রেডিওযোগাযোগ ব্যুরোর প্রধান ফ্রাসোঁয়া ৠান্সি বলেছেন, এর ফলে বিশ্বের যেকোনো স্থানে প্লেনের অবস্থান নিশ্চিত করা যাবে।

বর্তমান রাডার ও অন্যান্য যোগাযোগ ব্যবস্থায় আকাশপথের ৭০ শতাংশই ট্র্যাকিং আওতার বাইরে রয়ে গেছে। ফলে অনেক সময়ই রাডার থেকে প্লেন গায়েব হয়ে যাওয়ার মতো ঘটনা ঘটতে দেখা যায় বলে জানান ৠান্সি।

Post A Comment: