প্যারিসের ভয়াবহ হামলার পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন মনে করছেন, জঙ্গি হামলার উচ্চ ঝুঁকিতে রয়েছে তার দেশও। যেসব ব্রিটিশ নাগরিক অবকাশ যাপনে প্যারিসে গিয়েছেন তাদের নিরাপদ স্থানে থাকার নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। সেই সঙ্গে ব্রিটেনের বিমানবন্দর এবং ফেরি টার্মিনালে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদারের পরামর্শও দিয়েছেন ক্যামেরন। খবর ইন্ডিপেনডেন্টের।




ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, প্যারিসে ভয়াবহ এই হামলা পশ্চিমা বিশ্বের জন্য বড় ধরনের হুমকি। সেই সঙ্গে যুক্তরাজ্যও হামলার ঝুঁকিতে আছে বলে সতর্ক করেছেন তিনি। ক্যামেরন তাঁর দেশের নাগরিকদের ‘সতর্ক’ থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। সেই সঙ্গে এটিও স্পষ্ট করেছেন যে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে, আতঙ্কিত বা হুমকি দেয়া হয়নি। সেই সঙ্গে কথি


ত ইসলামিক জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) কে এবং এর মতাদর্শকে ধ্বংস করা হবে বলে ঘোষণা দেন।

আগামীকাল তুরস্কে জি২০ সামিট সম্মেলনে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে সারা বিশ্বে জঙ্গি কর্মকাণ্ড বেড়ে যাওয়া নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানা গেছে।

এদিকে ডাউনিং স্ট্রিটের পক্ষ থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে, প্যারিস হামলা সত্ত্বেও সিরিয়াতে আইএস বিরোধী অভিযান থেকে পিছু হটবে না ব্রিটেন।

উল্লেখ্য, শুক্রবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যা থেকে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে জঙ্গি হামলায় শতাধিক লোক প্রাণ হারায়। হামলার দায় শিকার করেছে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট (আইএস)। এ হামলায় কমপক্ষে আটজন হামলাকারী নিহত হয়েছে বলে দাবি প্যারিস পুলিশের। জঙ্গিদের হামলার লক্ষ্যবস্তু ছিল বিনোদন কেন্দ্র, রেস্তোরা এবং জনবহুল স্থানগুলো। জার্মানি-ফ্রান্স ফুটবল ম্যাচ চলাকালীন স্টেডিয়ামের খুব কাছেও বিস্ফোরণ ঘটনো হয়েছে।

Post A Comment: