আইরিশ বিমানটি লিসবন থেকে ডাবলিন যাচ্ছিল। ছবি: রয়টার্সবিমানে করে যাওয়ার সময় ক্ষিপ্ত হয়ে এক সহযাত্রীর ওপর হামলা করার পর হামলাকারী নিজেই মারা গেছেন। গত রোববার এ ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেপুলিশ।বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে জানানো হয়, বিমানটি পর্তুগালের লিসবন থেকে আয়ারল্যান্ডের ডাবলিন যাচ্ছিল।ঘটনার পর বিমানটি দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় আইরিশ শহর কর্কে আসে। সেখানে২৪ বছর বয়সী হামলাকারী ব্রাজিলীয় যুবককেমৃত ঘোষণা করা হয়।

বিমানের অন্য যাত্রীদের ভাষ্য, ওই যুবক তাঁর পাশে বসা এক যাত্রীকে কামড় দেন। বিমানের ক্রুরা তাঁকে আটকানোর চেষ্টা করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে জ্ঞান হারান তিনি।

বিমানে থাকা চিকিৎসক ও সেবিকা ওই ব্যক্তির জ্ঞান ফেরাতে ব্যর্থ হন। বিমানের ক্যাপ্টেন চিকিৎসা-বিষয়ক জরুরি অবস্থা জারি করেন। এরপর বিমানটি অবতরণ করে।

ওই যুবক কীভাবে মারা গেছেন, তা স্পষ্ট নয়।

ব্রাজিলের ওই যুবকের সঙ্গে ভ্রমণ করা ৪৪ বছর বয়সী এক পর্তুগিজ নারীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তাঁর কাছে সন্দেহজনক মাদকদ্রব্য পাওয়া গেছে।


কামড়ের শিকার যাত্রীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিমানের ১৬৫ জন যাত্রী এবং ছয়জন ক্রু বাসে করে ডাবলিন গেছেন।

Post A Comment: