রাশিয়ান গ্রাম চিরকায় ভেড়াপালক ব্লাসিয়াস লাভরেন্টিভের ফার্মে জন্ম নেয় অদ্ভুত চেহারার এই ভেড়া। তবে এমন চেহারা হবার কারণেই সে জবাই হওয়া থেকে বেঁচে যায় এবং তার দামটাই বেড়ে যায় অনেকগুণ।


আইরিশ মিররের প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, এই ফার্মের এক ভেড়ী এই অদ্ভুত ভেড়ার জন্ম দেবার পর তাকে দেখে নিতান্তই আতংকিত হন ব্লাসিয়াস। কারণ তার চেহারা মোটেই সাধারন ভেড়ার মতো নয় বরং লম্বা নাকওয়ালা এক বুড়ো মানুষের মতো। তবে সাধারণ ভেড়ার তুলনায় তার কদর এখন অনেক বেশি। কারণ একে সার্কাসে পাঠিয়ে দেবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তার মালিক।


এই ভেড়াটির এমন অস্বাভাবিক অবয়ব হবার কারণ কি? স্থানীয় পশু চিকিৎসক ডরোফেই গ্যাভ্রিলভের মতে, অতিরিক্ত ভিটামিন এ প্রয়োগের কারণে ভেড়াটির চেহারা এমন। প্রতিবেশীদের বিস্ময়ের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সে। তবে চেহারা বিরক্তিতে ভরা মানুষের মতো হলেও, ডানা মিশিনা নামের এক প্রতিবেশি বলেন ভেড়াটির আচরন যথেষ্টই ভদ্র। বয়স বাড়লে ভেড়াটির চেহারা কেমন হবে তা দেখার অপেক্ষায় আছেন তিনি।


তবে অবয়ব অস্বাভাবিক হলেও এতে ভেড়াটির স্বাস্থ্যের ওপর কোনো প্রভাব পড়বে না। আর দশটি সাধারন ভেড়ার বাচ্চার মতোই তার আচরন এবং আশা করা হচ্ছে অন্যান্য ভেড়াদের মতোই বেড়ে উঠবে সে।

Post A Comment: