দেড় মাস পর ঘুম ভাঙল মায়ের ঘুমপাড়ানি গানে
দেড় মাস পর ঘুম ভাঙল মায়ের ঘুমপাড়ানি গানে

ডাক্তাররা একরকম হাল ছেড়েই দিয়েছিলেন।  কোনো ওষুধেই কাজ হয়নি শিশুটির।  দেড় মাস ধরে আচ্ছন্ন কোমায়।  অবশেষে আশার আলো, মায়ের ঘুমপাড়ানি গানই জাগিয়ে তুলল শিশুটিকে।  অবিশ্বাস্য ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের জয়পুরের এক হাসপাতালে।


দেড় মাস আগে আড়াই বছরের কপিলকে যখন তার মা-বাবা হাসপাতালে নিয়ে আসেন, তখনই সে কোমায়।  ডাক্তাররা নানাভাবে চেষ্টা করে শিশুটিকে কোমা থেকে বের করে আনতে পারেননি।  কিন্তু তাদের সবরকম প্রচেষ্টাই জলে যায়।

চিকিত্‍‌সায় কোনোরকম সাড়া দেয়নি শিশুটি।  শিশুর জীবনমরণ একসময় 'ওপরওলার' হাতেই ছেড়ে দিয়েছিলেন।  শেষ করণীয় হিসেবে মেডিসিন ছেড়ে ভরসা করেন 'মিউজিক থেরাপি'তে। তাতেও আশানুরূপ ফল না পেয়ে, শিশুটির কানে দেয়া হয় 'লোরি', মায়ের গলায় গাওয়া ঘুমপাড়ানি গান।  তাতেই মিরাকল! মায়ের ঘুমপাড়ানি গান শুনেই নড়েচড়ে ওঠে কোমায় থাকা কপিল।

ডাক্তাররা জানিয়েছেন, মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণের কারণে নিউমোনিয়া আক্রান্ত কপিল কোমায় চলে গিয়েছিল।  এখন সে ডাকলে সাড়া দিচ্ছে।  চোখ মেলেও তাকাচ্ছে।  দু'দিন আগেও এতটা আশা করতে পারেননি ডাক্তাররা। 

Post A Comment: