অল্প বয়সেই বিদায় ঘণ্টা বাজাতে পারে যা!
অল্প বয়সেই বিদায় ঘণ্টা বাজাতে পারে যা!


আপনি কি দিনে প্রচুর কফি খান? ঘুম কাটাতে কাপের পর কাপ উড়ে যায়, নিমেষে? তাহলে এখনই সতর্ক হন। না হলে বিপদ অনিবার্য।বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, দিনের চার কাপের বেশি কফি খাওয়া শরীরের পক্ষে মারাত্মক ক্ষতিকর। স্থুল ব্যক্তি ও অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের বিশেষ করে সতর্ক করছেন বিজ্ঞানীরা।ইউরোপের দেশগুলিতে খাদ্য নিরাপত্তা সংক্রান্ত একটি রিপোর্টে বিজ্ঞানীদের পরামর্শ, দিনে ৪০০ মিলিগ্রামের বেশি কফি খাওয়াই উচিত নয়।

 মেশিনে তৈরি বড় কাপের এক কাপ কফিতে সাধারণত ১০০ মিলিগ্রাম ক্যাফিন থাকে। বড় কাপে সারা দিনে দু'কাপ কফি যথেষ্ট। তার বেশি খেলে হৃদযন্ত্র বিকল হওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়। ফলে কম বয়সেই হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের ক্ষেত্রেও এর সম্ভাবনা বাড়ে।দু'কাপের বেশি কফি খেলে কী কী হতে পারে?বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, বেশি কফি খেলে অনিদ্রা বাসা বাঁধে শরীরে। একই সঙ্গে বাড়ে অবসাদও। 
এই জোড়া ফলায় হার্টের দফারফা হয়ে যায়। ফলে কম বয়সেই হার্ট অ্যাটাক হতে পারে। অন্তঃসত্ত্বা মহিলাদের ক্ষেত্রে শিশুর স্বাভাবিক বৃদ্ধিতে কুপ্রভাব ফেলে ক্যাফিন। সেক্ষেত্রে শিশুর জন্ম থেকেই দুর্বল হয়। তাই শরীর ফিট রাখতে বড় কাপে সারাদিনে এক কাপ কফি খেতে পারলেই সবচেয়ে ভালো।

Post A Comment: