সিটি করপোরেশনের মেয়রের অনুপস্থিতিতে সেই দায়িত্ব প্যানেল মেয়রদের মধ্য থেকে কেউ পালন করবেন, এমনটাই নিয়ম। কিন্তু তা না করে রাজশাহী সিটি করপোরেশনের মেয়রের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ২১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর নিজাম উল আযীমকে। আজ সোমবার এ সংক্রান্ত একটি চিঠি রাজশাহী সিটি করপোরেশনে এসে পৌঁছেছে।

রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে গতকাল রোববার বিকেলে স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সরোজ কুমার নাথ এই চিঠিতে স্বাক্ষর করেন। রাজশাহী সিটি করপোরেশনের প্রধান প্রকৌশলী আশরাফুল হক এই চিঠি পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। নির্বাচিত মেয়র মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলকে ৭ মে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

সিটি করপোরেশনের এক নম্বর প্যানেল মেয়র আনোয়ারুল আমিন আযম বর্তমানে কারাগারে। দুই নম্বর প্যানেল মেয়র নূরুজ্জামান মামলার আসামি হয়ে পলাতক। আর তিন নম্বর প্যানেল মেয়র হলেন নূরুন্নাহার বেগম। তিনি বিএনপির সমর্থন নিয়ে সংরক্ষিত ওয়ার্ড থেকে নির্বাচিত। সাধারণত নির্বাচিত মেয়রের অনুপস্থিতিতে তাঁরই দায়িত্ব পাওয়ার কথা।

নতুন প্যানেল মেয়র তৈরির তৎপরতা

সিটি করপোরেশনের একটি সূত্র জানিয়েছে, এ সমস্যা সমাধানের জন্য রাজশাহী জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে তিনজন কাউন্সিলরের নাম দিয়ে নতুন একটি প্যানেলের তালিকা মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়।
প্রস্তাবিত এই প্যানেলের এক নম্বরে ছিলেন পাঁচ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুজ্জামান, ২১ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর নিজাম উল আযীম ও তিন নম্বর সংরক্ষিত নারী আসনের নির্বাচিত সদস্য মুসলিমা বেগম বেলী। এদের মধ্যে প্রথম দুজন আওয়ামী লীগের অনুসারী এবং তৃতীয়জন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী মহিলা দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য।
প্যানেল মেয়রকে টপকে কাউন্সিলরকে মেয়রের দায়িত্ব দেওয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ তোফায়েল আহমেদ প্রথম আলোকে বলেন, যেহেতু প্যানেল মেয়র রয়েছেন সেখানে তাঁকে দায়িত্ব না দেওয়া আইনের লঙ্ঘন ও অশোভন। মন্ত্রণালয় যদি অন্য কাউকে দায়িত্ব দিতে চায় তাহলে কাউন্সিল ডেকে নতুন প্যানেল তৈরি করে প্যানেল মেয়রকে দায়িত্ব দিতে পারে।
নির্বাচিত মেয়রের অনুপস্থিতিতে ১২ মে সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিল নুরুন্নাহার দায়িত্ব নিতে আসছেন এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে নগর ভবনে পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পরের দিনও পুলিশ ছিল।
এ ব্যাপারে সে সময় বোয়ালিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহামুদুর রহমান বলেন, নগর ভবনে উত্তেজনা চলছিল। সেখানে গন্ডগোলের আশঙ্কায় পুলিশ পাঠানো হয়েছিল।

Post A Comment: