একদিকে চলছে < href="" title="" >< href="" title="" >মাশরাফি</a></a>-তামিম-সাকিবদের ঘাম ঝরানো ফিটনেস পরীক্ষা; অন্যদিকে ভারতীয় নির্বাচক কমিটি বসেছে তাদের দল গঠনে। সংবাদকর্মীরা একবার নজর রাখছেন < href="" title="" >মাশরাফি</a>দের দিকে, পরমূহূর্তে খবর নিচ্ছেন ভারতের দল গঠন নিয়ে। দামামা বুঝি বেজে গেল বাংলাদেশ-ভারত লড়াইয়ের!

বেশ কিছুদিন ঝিমিয়ে পড়েছিল মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়াম। পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ শেষে খেলোয়াড়েরা পেয়েছিলেন খানিকটা অবসর। হাতে পাওয়া এ ‘অবসরে’ দৌড়ঝাঁপ কমেছিল সংবাদকর্মীদেরও। তবে ভারতের বিপক্ষে সিরিজ সামনে রেখে আবারও সরব হয়ে উঠছে মিরপুরে ‘হোম অব ক্রিকেট’।
ঢাকা টেস্ট বাদ দিলে পাকিস্তানের বিপক্ষে দুর্দান্ত সিরিজ খেলা বাংলাদেশ দলকে বেশ ফুরফুরে মেজাজেই পাওয়া গেল। ক্ষণে ক্ষণে স্বভাবসুলভ রসিকতায় মেতে উঠলেন ওয়ানডে, টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক < href="" title="" >মাশরাফি</a> বিন মুর্তজা। রসিকতায় মেতে উঠলেন তামিম ইকবালও। বাংলাদেশ যেন সুখি পরিবার; আত্মবিশ্বাসে ভরপুর দৃঢ় প্রত্যয়ী এক দল।
পূর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী আজ শুরু হয়েছে ফিটনেস পরীক্ষা। প্রায় ঘণ্টা চারেক ধরে চলল < href="" title="" >মাশরাফি</a>-তামিম-সাকিবদের ফিটনেস পরীক্ষা। কদিনের বিরতিতে দুই-একজনের ঠিক না থাকলেও বেশিরভাগের ফিটনেসে সন্তুষ্ট মারিও ভিলাভারায়েন। জাতীয় দলের স্ট্রেংথ ও কন্ডিশন কোচ মারিও বললেন, ‘প্রত্যেক খেলোয়াড়ের ফিটনেস দেখতে কিছু পরীক্ষা করা হয়েছে। বিশ্বকাপ ও পাকিস্তানের বিপক্ষে সিরিজ থাকায় আমরা এ পরীক্ষাগুলো অনেকদিন করতে পারিনি। যদি গত কয়েক মাসের কথা ভাবেন, খেলোয়াড়েরা প্রচুর ক্রিকেট খেলেছে। সে হিসেবে আমি ফিটনেস নিয়ে সন্তুষ্ট। তবে এখনও আরও কাজ করতে হবে।’
কিছু খেলোয়াড় এখনো চোটাক্রান্ত। মুশফিক-তামিমের চোট এখনো পুরোপুরি কাটেনি। মারিও বললেন, ‘মুশফিকের চোট ফিজিও দেখছেন। তামিমের পুনর্বাসন চলছে। প্রতিদিন এটি পর্যবেক্ষণ করতে হবে। চোটটা খুবই জটিল। কাজেই প্রতিদিন মূল্যায়ন দেখতে হবে।’
ফিটনেস ট্রেনিং চলবে আগামীকালও। কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহ ছুটি কাটিয়ে অস্ট্রেলিয়া থেকে ফিরবেন ২৮ মে। ২৯ মে থেকে শুরু হবে বাংলাদেশ দলের ব্যাটে-বলে অনুশীলন। অবশ্য এর মাঝখানে ঢাকা ও চট্টগ্রামে বিসিএলের শেষ পর্বের ম্যাচ খেলবেন ক্রিকেটাররা। এরপর সবাই পূর্ণ মনোযোগ দেবে ভারত-মিশনে।

Post A Comment: