ইউটিউবের এক দশক পূর্তি।
ইউটিউবের এক দশক পূর্তি। 

ভিডিও দেখার সবচেয়ে জনপ্রিয় ওয়েবসাইট ইউটিউব। এক দশকে সারা বিশ্বে বিনা মূল্যে ভিডিও দেখার এ ওয়েবসাইট তুমুল জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ২০০৫ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ইউটিউবের (www.youtube.com) যাত্রা শুরু হয়। তবে ২০০৫ সালের মে মাসে ইউটিউব আনুষ্ঠানিকভাবে ব্যবহারকারীদের জন্য পরীক্ষামূলক সংস্করণ উন্মুক্ত হয়। পরবর্তী সময়ে নভেম্বরে পূর্ণাঙ্গভাবে যাত্রা শুরু করে ইউটিউব।
চাদ হার্লি, স্টিভ চেন এবং জাভেদ করিমের হাত ধরে সানফ্রান্সিসকোতে শুরু হয় ইউটিউবের যাত্রা। এর আগে তিন সহ-প্রতিষ্ঠাতাই ছিলেন অনলাইন লেনদেনের জনপ্রিয় মাধ্যম পেপ্যালের কর্মী।

২০০৫ সালের ২৩ এপ্রিল ‘মি অ্যাট দ্য জু’ নামের ১৮ সেকেন্ডের একটি ভিডিও প্রকাশ করে জাভেদ করিম যা ইউটিউবের প্রথম ভিডিও। ভিডিওটি ২ কোটি ৩০ লাখ বার দেখা হয়েছে। ২০০৬ সালের ৬ অক্টোবর ১৬৫ কোটি ডলারের বিনিময়ে ইউটিউব কিনে নেয় বিশ্বখ্যাত সার্চ ইঞ্জিন গুগল।
২০০৪ সালে গণিত, প্রোগ্রামিং এবং বিজ্ঞান নিয়ে বিনা মূল্যে চালু হওয়া খান একাডেমির সব কোর্সই রয়েছে ইউটিউবে। এগুলোর মাধ্যমে সারা বিশ্বে শিক্ষা গ্রহণ করছে এক কোটি ৫০ লাখেরও বেশি শিক্ষার্থী। ২০০৭ সালের মে মাসে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ জনপ্রিয় ইউটিউব অ্যাকাউন্টধারীদের আয়ের সুযোগ চালু করে।

২০১২ সালের ১৫ জুলাই দক্ষিণ কোরিয়ার পপসংগীত তারকা সাইয়ের ‘গ্যাংনাম স্টাইল’ ভিডিও ইউটিউবে রেকর্ড সৃষ্টি করে। এ ভিডিওটি দেখা হয়েছে ২০০ কোটি বার!
একই বছর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার নির্বাচনী প্রচারণায় বেশ সাড়া পড়ে ইউটিউবে।
২০১৩ সালে প্রতি মাসে ইউটিউবের ব্যবহারকারী দাঁড়ায় ১০০ কোটিতে। চলতি বছর পূর্ণাঙ্গ যাত্রা শুরুর পর থেকে এক দশক পূর্ণ করে ইউটিউব।
বর্তমানে নিয়মিত ইউটিউব ব্যবহারকারী ১০০ কোটি, যা ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মধ্যে এক-তৃতীয়াংশ। এ ছাড়া বর্তমানে প্রতি মিনিটে ৩০০ ঘণ্টা ভিডিও ছাড়া হয় ইউটিউবে। 

Post A Comment: