ঢাকা: গত ডিসেম্বর মাসে ‘সীমানা ছাড়িয়ে বাংলা’ স্লোগানে ইন্টারনেটে বাংলা ভাষা ছাড়িয়ে দেয়ার আহ্বান জানিয়ে শুরু হয় বাংলার জন্য বিশেষ গুগল ডেভেলপারস্ গ্রুপ জিডিজি বাংলার কার্যক্রম।



গুগল অনুবাদে মাতৃভাষার জন্য সবচেয়ে বেশি অবদান রেখে নজির সৃষ্টি করে বাংলাদেশ। ইন্টারনেটে নিজের ভাষাকে সমৃদ্ধ করতে বাংলাদেশের এই উদাহরণ থেকে সারা পৃথিবীর শেখার আছে বলে জানিয়েছেন গুগল ট্রান্সলেট কমিউনিটির প্রোগ্রাম ম্যানেজার স্ভিটা কালম্যান।


গত মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের সিলিকন ভ্যালির মাউন্টেন ভিউয়ে গুগল ক্যাম্পাসের কম্পিউটার হিস্ট্রি মিউিজয়ামে শুরু হয় দুই দিনের গুগল ডেভেলপারস গ্রুপ বা জিডিজি গ্লোবাল সামিট। এই সম্মেলনের নির্ধারিত প্রথম আলোচনায় বাংলাদেশের ভূয়সী প্রশংসা করা হয়। এতে গুগল অনুবাদে বাংলা ভাষাকে সমৃদ্ধ করতে গত ২৬ মার্চ সারা দেশে জিডিজি বাংলার আয়োজেন ‘বাংলার জন্য চার লাখ’ কর্মসূচির বিস্তারিত তুলে ধরা হয়।

আনুষ্ঠানিকভাবে জানানো হয়, ওই দিন বাংলার জন্য অনুবাদের সংখ্যা ছিল সাত লাখের বেশি। সেই সঙ্গে আগামী ৫ জুনের মধ্যে বাংলাদেশের এই রেকর্ড ভাঙতে পারলে বিশেষ পুরস্কারের ঘোষণা দেয়া হয়। আর এই নজিরবিহীন অবদানের জন্য বিশেষভাবে প্রশংসিত হয় বাংলাদেশ।

জিডিজি সম্মেলনে এ বছর ১০০টির বেশি দেশ থেকে প্রায় ৪০০ জিডিজি কমিউনিটি ম্যানেজার অংশ নেয়। বাংলাদেশ থেকে জিডিজি বাংলার দুই কমিউনিটি ম্যানেজার জাবেদ সুলতান পিয়াস, জাবেদ মোর্শেদসহ মোট ৫ জন অংশ নেন জিডিজির সবচেয়ে বড় এই আয়োজনে।

সম্মেলনের প্রথম দিনে গুগল ট্রান্সলেট কমিউনিটি ছাড়াও গুগল ডেভেলপার এক্সপার্ট প্রোগ্রাম, গুগল এডুকেশন প্রোগ্রাম, গিটবুক, কনটেন্ট ডেভেলপমেন্ট, গুগল লঞ্চপ্যাডনসহ গুগলের বর্তমান ও ভবিষ্যত কিছু প্ল্যাটফরম নিয়ে আলোচনা করা হয়। সবার জন্য ছিল পারস্পরিক যোগাযোগের বিশেষ কর্মশালা। সম্মেলেনর দ্বিতীয় দিন বুধবারে গুগলের বিভিন্ন প্রযুক্তি নিয়ে ২৬টি বিষয়ের ওপর আলোচনা অনুষ্ঠিত হবে।

জিডিজি সম্মেলনের পর ২৮ ও ২৯ মে স্যান ফ্রান্সিসকোতে অনুষ্ঠিত হবে গুগলের সবচেয়ে বড় বার্ষিক সম্মেলন গুগল আইও। বরাবের মতো এ বছরও এই সম্মেলন থেকে গুগলের নতুন কোনো প্রযুক্তিগত চমকের ঘোষণা আসতে পারে বলে আশা করা হচ্ছে।
ডিজিজি সম্মেলনের আগে গত সোমবার অংশগ্রহণকারীদের গুগলের নান্দনিক অফিসের বিভিন্ন অংশ ঘুরে দেখানো হয়। তুলে ধরা হয় গুগলের এগিয়ে যাওয়ার ইতিহাস।

গুগল ট্রান্সলেটে বাংলা অনুবাদের সুবিধা থাকলেও এটি আগে তেমন সমৃদ্ধ ছিল না। গুগলের বাংলা ভাষাভিত্তিক ডেভেলপমেন্ট গ্রুপ ‘জিডিজি বাংলা’ গত ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসে নানা কর্মসূচির মাধ্যমে সবার অংশগ্রহণে বাংলা অনুবাদ সেবা সমৃদ্ধ করার উদ্যোগ নেয়। আর এই কার্যক্রমের জন্যই জিডিজি সম্মেলনে প্রশংসিত হয়েছে বাংলাদেশ। ৫ জুনের মধ্যে নিজের ভাষার জন্য মানসম্মত অবদান রেখে গুগলের বিশেষ পুরস্কার পাওয়ার সুযোগ আছে সবার জন্য। মেডবাই বাংলাদেশ' প্রত্যায়ে ১৫ জুন থেকে ‘বাংলাদেশ আইসিটি এক্সপো

Post A Comment: