আফগানিস্তান দল অনুশীলন করল শেখ জামাল ধানমন্ডি মাঠে l প্রথম আলোধানমন্ডির শেখ জামাল ক্লাব মাঠে আফগান ফুটবলাররা যখন ঢুকলেন, ঘড়ির কাঁটা ৫টা ছুঁই-ছুঁই। মাঠে এসে দ্রুতই অনুশীলনে নেমে গেলেন তাঁরা।
বরাদ্দ সময়ের ঘণ্টা খানেক নষ্ট হয়েছে পথে। এ জন্য অনুশীলনের বাইরে কথা বলতে খুব বেশি আগ্রহী ছিলেন না ফুটবলাররা। তবে আফগানিস্তানের জার্মান কোচ স্লাভেন স্কেলেজিচ নতুন দলকে নিয়ে শোনালেন নতুন স্বপ্নের কথা। গত ফেব্রুয়ারিতে দায়িত্ব নিয়েছেন সার্বিয়ান বংশোদ্ভূত ৪৩ বছর বয়সী কোচ।


আগামীকাল বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামে বাংলাদেশের সঙ্গে একমাত্র প্রীতি ম্যাচ খেলবে আফগানিস্তান। বাংলাদেশের মতো আফগানদেরও চোখ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে। ‘ই’ গ্রুপে আফগানিস্তানের সঙ্গী জাপান, সিরিয়া, সিঙ্গাপুর ও কম্বোডিয়া।

এই আফগানিস্তান দলটা যেন ‘প্রবাসী বাহিনী’। আর এটিই কোচের চোখে বড় শক্তি। আফগানরা বর্তমান সাফ চ্যাম্পিয়ন। নেপালে হওয়া সর্বশেষ সাফের দলের মাত্র চারজন এসেছেন ঢাকায়। দলের বেশির ভাগ ফুটবলারই নতুন এবং এঁরা খেলছেন ইউরোপে। অবাক করা তথ্যই বটে—এই দলের ১৮ জনই খেলেন বিদেশি লিগে! প্রত্যেকেরই আছে দ্বৈত পাসপোর্ট।
বিশ্বকাপের বাছাইপর্বের এই দলের ৭ জন খেলেন জার্মানির বিভিন্ন লিগে, সুইডেনে এবং হল্যান্ডের লিগে ৩ জন করে। নরওয়ে, অস্ট্রেলিয়া, থাইল্যান্ড ও ডেনমার্কে ১ জন করে। ভারতের আই লিগে খেলছেন অন্যজন।
স্কেলেজিচের জাতীয় দলে কাজ করার অভিজ্ঞতা এই প্রথম। আগে জার্মানির বিভিন্ন লিগে যুব দলের কোচ হিসেবে কাজ করেছেন। আফগানিস্তানের দায়িত্ব নেওয়ার পর জার্মানি থেকে এনেছেন গোলকিপিং কোচ, ভিডিও অ্যানালিস্ট এবং ফিজিও। স্কেলেজিচের অধীনে ২৯ মে লাওসের সঙ্গে একমাত্র প্রীতি ম্যাচ খেলেছে আফগানরা। লাওসের ওই ম্যাচে ২-০-তে জেতে তারা। ঢাকায়ও জিততে চান স্কেলেজিচ, ‘এখানে জিততেই এসেছি।’
আফগানিস্তান দলের সঙ্গে আলাদা ফুটবল-দর্শন নিয়ে কাজ করতে চান স্কেলেজিচ, ‘এটা নতুন একটা দল। নতুন দর্শন। আমি জার্মানি থেকে এই দর্শনটা এনেছি।’ কী সেই দর্শন? হেসে উত্তর দিলেন, ‘আমার দর্শন হলো বার্সেলোনা ও ডর্টমুন্ডের মতো শুধুই আক্রমণ এবং আক্রমণ। ম্যাচে আমরাই আধিপত্য রেখে খেলতে চাই।’
বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে আফগানিস্তানের গ্রুপসঙ্গী সিঙ্গাপুর। পরশু বাংলাদেশ-সিঙ্গাপুর প্রীতি ম্যাচটি তাই গভীর মনোযোগেই দেখেছেন।
বাংলাদেশকে সমীহই করছেন স্কেলেজিচ, ‘বাংলাদেশ গোছানো দল। হেমন্ত, এনামুল ভালো মানের ফুটবলার। জামাল ভূঁইয়াও রক্ষণে ভালো খেলেছে। আমাদের জন্য কঠিন একটা ম্যাচই হবে।’ তবে গরমকে সমস্যা মনে করছেন না আফগানিস্তানের কোচ, ‘আবহাওয়া গরম থাকলেও ছেলেদের মাথা ঠান্ডা থাকবে। আশা করি খেলতে সমস্যা হবে না।’
গত বছর দক্ষিণ কোরিয়ায় এশিয়ান গেমসে আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে ১-০ গোলে হারিয়েছিল বাংলাদেশের যুবারা। ওই হারের শোধ তুলতে চান জার্মান কোচ।

Post A Comment: