প্রথম ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ইসরাইল যাচ্ছেন নরেন্দ্র মোদি। দুই দেশের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় নিরাপত্তা ব্যবস্থা সুদৃঢ় করাই মোদর এক সফরের মূল উদ্দেশ্য।
যদিও পররাষ্ট্রমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ জানিয়েছেন, মোদির ইসরাইল সফরের নির্দিষ্ট দিন এখন পর্যন্ত ঠিক হয়নি।
সুষমা স্বরাজ জানিয়েছেন তিনি নিজে এই বছর ফিলিস্তিন ও জর্ডনের সঙ্গে ইসরাইল সফরেও

যাবেন। ১৯৯২ সাল থেকে ভারতের সঙ্গে ইসরাইলের ''পূর্ণ'' কূটনৈতিক সম্পর্ক গঠিত হয়।
যদিও এখন পর্যন্ত কোনো ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী বা রাষ্ট্রপতি ইসরাইল সফরে যাননি।
২০০৩ সালে সে দেশের তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী আরিয়েল শারন ভারত সফরে এসেছিলেন।রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান ''আমি এই বছরই ইসরাইল, ফিলিস্তিন ও জর্ডান সফরে যাচ্ছি। প্রধানমন্ত্রী ইসরাইল সফরে যাচ্ছেন। যদিও এখন কোনো নির্দিষ্ট দিন স্থির হয়নি। দু'দেশের পারস্পরিক সুবিধার উপর নির্ভর করেই প্রধান মন্ত্রীর সফরের দিন ঠিক হবে।
সুষমা স্বরাজ এই সংবাদ সম্মেলনেই জানিয়েছেন ‌ফিলিস্তিনের প্রতি ভারতের পলিসি পরিবর্তনের কোনো সম্ভাবনা নেই।''
অটল বিহারী বাজপেয়ীর আমলে তৎকালীন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী এল কে আদবানি ইসরাইলে গিয়েছিলেন। পররাষ্ট্রমন্ত্রী থাকাকালীন জসবন্ত সিং ও এসএম কৃষ্ণাও সেদেশে গেছেন। সাম্প্রতিক সময়ে বর্তমান স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়েরও ইসরাইল সফর সারা।
ইসরাইল বন্ধু রাষ্ট্র হলেও ফিলিস্তিনের স্বার্থ ক্ষুণ্ণ হতে দেবে না ভারত, জানিয়েছেন সুষমা স্বরাজ।

Post A Comment: