১১ বছরেই তিন বিষয়ে স্নাতক তিনি!
১১ বছরেই তিন বিষয়ে স্নাতক তিনি!

অংক, বিজ্ঞান ও বিদেশী ভাষা শিক্ষা বিষয়ে তিনটি সহযোগী ডিগ্রি লাভের মাধ্যমে স্নাতক সম্পন্ন করেছে মাত্র ১১ বছর বয়সের ছোট্ট এক ছেলে! যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার বাসিন্দা তানিশক আব্রাহাম সেখানকার স্যাক্রেমেন্টো এলাকার আমেরিকান রিভার কলেজ থেকে এ বছর পাশ করা এক হাজার আটশ’ শিক্ষার্থীরই একজন। চলতি বছর ওই কলেজ থেকে স্নাতক ডিগ্রি অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের মধ্যে সর্বকনিষ্ঠ সে। কলেজ কর্তৃপক্ষের বিশ্বাস- কেবল চলতি বছর নয়, সম্ভবত সর্বকালের সর্বকনিষ্ঠ স্নাতক এই শিশুটি। কলেজের মুখপাত্র স্কট ক্রো জানিয়েছেন এনবিসি নিউজকে। 

গত বছর তানিশক যুক্তরাষ্ট্রের স্নাতক পর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তি হয় অন্যতম কনিষ্ঠ শিক্ষার্থী হিসেবে। সাত বছর বয়স পর্যন্ত নিজ বাড়িতেই শিক্ষাগ্রহণকারী ছেলেটি গত বছরের মার্চ মাসে একটি প্রাদেশিক সম্মিলিত পরীক্ষায় পাশ করে এবং হাই স্কুল ডিপ্লোমা ডিগ্রি অর্জনের জন্য সক্ষম হিসেবে সনদপত্র পায়। গত বছর তার এই অর্জন মনোযোগ কেড়ে নিয়েছিল খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্টেরও। তানিশককে অভিনন্দন জানিয়ে একটি চিঠিও পাঠিয়েছিলেন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। সর্বসাম্প্রতিক অর্জন সম্পর্কে স্থানীয় এক টেলিভিশনে আব্রাহাম এই বলে প্রতিক্রিয়া দেখায় যে ‘এটা বড় কোনো ব্যাপার নয়’। 
তার মা তাজি আব্রাহাম জানান, বরাবরই অন্যান্য সমবয়সীদের চাইতে পড়াশোনায় অনেক এগিয়ে ছিল তানিশক। নিজের অন্যান্য স্নাতক সহপাঠীদের সম্পর্কে ছোট্ট তানিশক জানায়, কলেজে তার কয়েকজন সহপাঠীর সাথে সে ঘনিষ্ঠই ছিল এবং অন্যান্যরা নিজেদের সাথে ছোট্ট এক শিক্ষার্থীকে পেয়ে খুবই খুশি ছিল। ফক্স নিউজকে তানিশক বলে, ‘আমি শিখতে ভালোবাসি। আমি কেবলই শেখার আগ্রহ বজায় রেখেছি। আর আমার এ পর্যন্ত আসার পেছনে সেটাই একমাত্র কারণ।’ তানিশক বড় হয়ে চিকিৎসক হওয়ার আশা রাখে। তবে যেনতেন চিকিৎসক নয়, কিংবা শুধু মানুষকে সেবাদানেই সীমাবদ্ধ রাখতে চায় না সে নিজেকে। চিকিৎসা গবেষণায় নিজেকে নিয়োজিত করতে চায় সে। আরো একটি ইচ্ছে আছে অবশ্য তার, আর তা হলো মার্কিন প্রেসিডেন্টের পদে নিজেকে দেখা!

তানিশক আব্রাহাম সম্পর্কে জানতেঃ


Post A Comment: