সকালের নাস্তায় স্যান্ডউইচের সঙ্গে স্বাস্থ্যসম্মত এই ব্যানানা আলমন্ড স্মুদি রাখতে পারেন। এই বেভারেজ রেসিপিটি তৈরি করতে হিমায়িত কলা, আলমন্ড দুধ, মধু এবং শ্বেতবীজ লাগবে। আর তৈরি করতে মাত্র ১০ মিনিট লাগবে।


চলুন দেখে নিই রেসিপিটি-


উপকরণ:


২টা কলা

২ ফোঁটা আলমন্ড

২ টেবিল চামচ মাখন

২ চা চামচ মধু

৩ টেবিল চামচ শ্বেতবীজ

১ কাপ আলমন্ড

প্রণালি:


 ১. কলাগুলো খোসা ছাড়িয়ে টুকরা টুকরা করে কেটে একটি বোলে রাখুন। এরপর সেগুলো ফ্রিজে রেখে দিন কিছুক্ষণ।

২. সব উপকরণ- হিমায়িত কলা, মধু আলমন্ড দুধ, মাখন, শ্বেতবীজ ব্লেডারে দিন। সব উপকরণ ভালো মতো মিক্স না হওয়া পর‌্যন্ত ব্লেন্ড করুন।

৩. এরপর একটি গ্লাসে এই মজাদার পানীয়টি ঢেলে পরিবেশন করুন।
প্রয়াত হলেন অভিনেত্রী রীতা ভাদুড়ি 

প্রয়াত হলেন ভারতীয় সিনেমা-টিভির অভিনেত্রী রীতা ভাদুড়ি। তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। দীর্ঘদিন ধরে কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন জনপ্রিয় এ তারকা। ১০ দিন আগে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তিনি।


আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, মঙ্গলবার সকালে হাসপাতালেই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন রীতা।


রীতার মৃত্যুর খবর সর্বপ্রথম জানান অভিনেতা শিশির শর্মা। তিনি ফেসবুকে লেখেন ‘দুঃখের খবর, রীতা ভাদুড়ি আমাদের ছেড়ে গেলেন। আজ দুপুর ১২টা নাগাদ পারসি ওয়াডা রোডের শ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। একজন অসাধারণ মানুষকে হারালাম। এই ইন্ডাস্ট্রির অনেকের কাছেই একজন মা ছিলেন রীতা দেবী। মাকে আমরা মিস করব।’

সম্প্রতি ‘নিমকি মুখিয়া’ বলে একটি ধারাবাহিকে অভিনয় করেছিলেন রীতা ভাদুড়ি। ৭০টিরও বেশি ছবিতে দেখা গিয়েছিল রীতাকে। রাজ, জুলি, বেটা ও আরো বেশ কিছু ছবিতে অভিনয় করে নিজের জাত চিনিয়েছিলেন রীতা। টেলিভিশনের সঙ্গেও যুক্ত ছিলেন দীর্ঘদিন। ত্রিশেরও বেশি ধারাবাহিকে অভিনয় করেছেন তিনি।
 

চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে আদালতে হাজির না করায় যুক্তি উপস্থাপন আবার পিছিয়ে আগামী ২৪ জুলাই ধার্য করেছে আদালত।


মঙ্গলবার পুরান ঢাকার বকশিবাজারস্থ অস্থায়ী আদালতে ঢাকার ৫ নম্বর বিশেষ জজ ড. মো. আখতারুজ্জামান এ তারিখ ঠিক করেন।

একই সঙ্গে একইদিন পর্যন্ত সাবেক এ প্রধানমন্ত্রীর জামিনের মেয়াদও বাড়িয়েছে আদালত।

এর আগে এদিনও কারাকর্তৃপক্ষ খালেদা জিয়া আদালতে হাজির হওয়ার মতো শারীরিকভাবে সুস্থ নন মর্মে আদালতে একটি প্রতিবেদন পাঠায়।

অন্যদিকে খালেদা জিয়ার পক্ষে তার আইনজীবীরা তার জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর জন্য আবেদন করে শুনানি করেন।

গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলার রায়ে খালেদা জিয়াকে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড দেয় একই আদালত। এরপর থেকে তিনি নাজিমুদ্দিন রোডের পুরোনো কেন্দ্রীয় কারাগারে আছেন।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় গত ১ ফেব্রুয়ারি আসামি জিয়াউল হক মুন্নার পক্ষে যুক্তিতর্ক শুনানি অব্যাহত রয়েছে এবং খালেদা জিয়ার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন বাকি আছে।

২০১১ সালের ৮ আগস্ট জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলাটি দায়ের করে দুদক। এ মামলায় ২০১২ সালের ১৬ জানুয়ারি আদালতে চার্জশিট দাখিল করে দুদক। এ মামলায় তিন কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগ করা হয়।

মামলাটিতে বিএনপি নেতা সচিব হারিছ চৌধুরী এবং তার তৎকালীন একান্ত সচিব বর্তমানে বিআইডব্লিুউটিএ এর নৌ নিরাপত্তা ও ট্রাফিক বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক জিয়াউল ইসলাম মুন্না ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার একান্ত সচিব মনিরুল ইসলাম খান আসামি।