মিষ্টিমুখে আফগানি ‘মালিদা’ 

মিষ্টি জাতীয় খাবার যারা পছলদ করেন তারা কতো কিছু দিয়ে না মিষ্টি খাবার তৈরি করে থাকেন। আর নতুন নতুন ডিস পেলেই তারা ঝাঁপিয়ে পরেন। দেশ বিদেশের কতো রকমের মিষ্টিই তো খেয়েছেন তো আপনার লিস্ট থেকে আফগানিস্তানের ট্র্যাডিশনাল মিষ্টি ‘মালিদা’ কেনো বাদ যাবে। ঘরে তৈরি রুটি দিয়েই তৈরি করা হয় এই রুটি। তাহলে বুঝতেই পারছেন কতো সহজে আর কম খরচেই তৈরি করে ফেলতে পারবেন এই রুটি। আসুন তাহলে জেনে নেই আফগানিস্তানের ট্র্যাডিশনাল মিষ্টি ‘মালিদা’ মালিদা তৈরির রেসেপি


উপকরণ:

মাঝারি আকারের আটার রুটি ৮ টি,
গুঁড় (কুচি করে কাটা) ১/৪ কাপ,
এলাচ গুঁড়ো ১/২ চা চামচ,
বাদাম ১/২ কাপ,
খেজুর কুচি করে কাটা ১/৪ কাপ,
ঘি ২ টেবিল চামচ।


প্রণালি:

প্রথমে রুটিগুলো ভালো করে হাতে ছিঁড়ে ছোটো ছোটো পিস করে নিন।

এরপর একটি গ্রাইন্ডার বা ফুড প্রসেসরে দিয়ে রুটি আরও ছোটো করে গুঁড়ো ধরণের করে নিন। এতে প্রায় ৩ কাপ পরিমাণ রুটি হবে।

এরপর বাদাম গ্রাইন্ডারে দিয়ে ভেঙে নিন। চাইলে হামান দিস্তায় পিসে গুঁড়ো করে নিতে পারেন। খুব বড় হবে না আবার মিহি করেও ভেঙে নিতে হবে না।

একটি বড় বাটিতে বাদামগুঁড়ো, খেজুর কুচি, এলাচ গুঁড়ো এবং গুঁড় খুব ভালো করে নেড়ে মিশিয়ে নিন এবং আলাদা করে রাখুন।

এবার একটি প্যানে অল্প আঁচে ঘি গলিয়ে নিন এবং অল্প গরম হলেই প্রসেস করে রাখা রুটি দিয়ে ভালো করে ভাজতে থাকুন। রুটিগুলো প্রায় ৫-৭ মিনিট ভাজুন। এতে করে রুটির গুঁড়ো একটু মুচমুচে হবে।

ভাজা হয়ে গেলে এবার বড় বাটিতে রাখা বাদাম গুঁড়ের মিশ্রণে রুটির মিশ্রণ দিয়ে দিন এবং হাত দিয়ে ভালো করে মেখে নিন। যখন মিশ্রণ একটু ভেজা ভেজা হয়ে যাবে গুঁড়ের কারণে এবং আঠালো নরম ডো এর মতো তৈরি হবে তখন ছোটো ছোটো ভাগে ভাগ করে লাড্ডুর মতো বল তৈরি করুন।

একটির পর একটি বল তৈরি করে রেখে দিন। কিছুক্ষণ পড়েই নরম ভাব কেটে দিয়ে একটু শক্ত লাড্ডুর মতো তৈরি হয়ে যাবে। উপরে কাজু বাদাম দিয়ে সাজিয়ে পরিবেশন করুন।
তিনি সবচেয়ে আবেদনময়ী টেলিভিশন অভিনেত্রী

    বড়পর্দায় তার তেমন পরিচিতি নেই। কিন্তু ছোটপর্দা দিয়েই বাজিমাত করেছেন হিনা খান। ছোটপর্দার সবচেয়ে সুন্দরী অভিনেত্রীদের মধ্যে তিনি একজন। শুধু তাই নয়। এশিয়ার আবেদনময়ী অভিনেত্রীদের মধ্যেও তার নাম রয়েছে। এ সংক্রান্ত একটি খবর প্রকাশ করেছে ভারতের কলকাতা২৪ পত্রিকা।


ভারতের জম্মু ও কাশ্মীরের মেয়ে হিনা। গুরুগ্রামের একটি প্রতিষ্ঠান থেকে এমবিএ করেন তিনি। এরপর, ২০০৯ সালে ইয়ে রিসতা কেয়া ক্যাহেলাতা হ্যায় ধারাবাহিক দিয়ে টেলিভিশনে তার আত্মপ্রকাশ। ২০১৬ পর্যন্ত এই ধারাবাহিকে তিনি ছিলেন প্রধান অভিনেত্রী। এর মাধ্যমেই জনপ্রিয়তার শিখরে পৌঁছান তিনি।


স্বপ্না বাবুল কা… বিদাই ধারাবাহিকেও কাজ করেছিলেন হিনা। সেখানেও তার কাজ প্রশংসা পেয়েছিল। সম্প্রতি বিগ বস ১১-এ অংশ নেন তিনি। এছাড়া নাচ বলিয়ে রিয়েলিটি শোয়ের সিক্সথ সিজনেও অংশ নিয়েছিলেন তিনি। অংশ নিয়েছিলেন ফিয়ার ফ্যাক্টর: খতরোঁ কি খিলাড়িতেও। ২০১৩ সালে মাস্টারশেফ: কিচেন কি সুপারস্টার শোয়ে বিচারকের আসনে ছিলেন তিনি।

শোনা যায় রবি জয়সওয়ালের সঙ্গে সম্পর্কে রয়েছেন হিনা। কিন্তু দুজনেই দুজনকে বন্ধু বলে দাবি করেন। ফিয়ার ফ্যাক্টর: খতরোঁ কি খিলাড়িতে তিনিও হিনার সঙ্গেই প্রতিযোগিতা করেছেন। হিনা যখন বিগ বস হাউজে ঢোকেন, রকি হিনার পরিবারের সঙ্গেই ছিলেন।

২০১৩ থেকে ২০১৭ সাল পর্যন্ত ৫০ জন এশিয়ার সেক্সিয়েস্ট(আবেদনময়ী) নারীদের তালিকায় ছিলেন হিনা।
 

পুঁজিবাজারের বস্ত্র খাতের তালিকাভুক্ত ড্রাগন সোয়েটার অ্যান্ড স্পিনিং লিমিটেড ২০১৭-১৮ হিসাব বছরের দ্বিতীয় প্রান্তিকের আর্থিক প্রতিববেদন প্রকাশ করেছে।


প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, দ্বিতীয় প্রান্তিক (জুলাই’১৭-ডিসেম্বর’১৭) শেষে কোম্পানিটির মুনাফা বেড়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা যায়, দ্বিতীয় প্রান্তিক (জুলাই’১৭-ডিসেম্বর’১৭) শেষে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.১১ টাকা। আগের বছর একই সময় হয়েছিল ০.৮৯ টাকা। অর্থাৎ আগের বছরের একই সময়ে কোম্পানিটির ইপিএস বেড়েছে ০.২২ টাকা।

আলোচিত সময়ে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ১৪.৯৭ টাকা। এ সময় শেয়ার প্রতি নগদ কার্যকরি প্রবাহ (এনওসিএফপিএস) হয়েছে ০.৩৯ টাকা।

এদিকে, অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর’১৭ শেষে কোম্পানিটির ইপিএস হয়েছে ০.৬৫ টাকা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ০.৪২ টাকা।

ডিএসই সূত্রে জানা গেছে, ১৫০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনধারী কোম্পানিটির পরিশোধিত মূলধন ১৩২ কোটি ২৫ লাখ টাকা। সোমবার কোম্পানিটির শেয়ার দর আগের কার্যদিবসের তুলনায় ০.৪৯ শতাংশ কমে ২০.২০ টাকায় লেনদেন হয়েছে।